ভিড় ঠেলে ঠাকুর দেখতে অনীহা, পুজোর কটাদিন কাটুক অন্যভাবে

0
19

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: পুজোর দিনগুলিতে কোন দিন কোন ঠাকুর দেখবেন তা হয়তো ঠিক করে ফেলেছেন অনেকে, আর ঠাকুর দেখা মানেই তো লম্বা লাইন, আর ভিড়ের মধ্যে ঠেলাঠেলি, কিন্তু অনেকেই তো এই ভিড় পছন্দ করেন না, সারাবছর অফিস আর বাড়ি সামলে পুজোর কটাদিন একটি নিজের মতো সময় কাটাতে চান অনেকে, অনায়াসে ছুটির কটাদিন বাড়িতেই কাটিয়ে ফেলুন। একঘেয়ে যাতে না লাগে তাই অবসরে এভাবে কাটাতে পারেন সময়। আপনার জন্য রইল একগুচ্ছ টিপস।

[আরও পড়ুনঃ পুজোয় চটজলদি চুলের জেল্লা]

·       আপনাকে কি বছরের প্রত্যেক দিন সকাল হতে না হতেই ব্যাগ কাঁধে নিয়ে অফিস ছুটতে হলে পুজোর এই কটাদিনের ছুটিতে নিজের সঙ্গে সময় কাটান।  একটু বেশি সময় কাটুক বিছানায়। সকালে দেরি করে ঘুম থেকে উঠুন। ভাত ঘুমও না হয় চলুক ওই কটাদিন। আর পারলে রাতেও তাড়াতাড়ি ঘুমোতে যান। পুজোর শেষে ঘোরাফেরা করে যখন সবাই ক্লান্ত, তখন দেখবেন এক্কেবারে তরতাজা হয়ে উঠেছেন আপনি।

 

·       আপনি কিন টিভি দেখতে ভালোবাসে? তবে এইকটা দিন টিভি দেখে সময় কাটান। মন চাইলে আগে থেকে বেশ কয়েকটি পছন্দসই সিনেমা ডাউনলোড করে রাখতে পারেন। আর ওয়েব সিরিজই যদি হয় আপনার প্রথম পছন্দ হয় তবে আপনার জন্য রয়েছে ‘নেটফ্লিক্স’, ‘হইচই’-এর মতো একাধিক ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম।

·       বই পড়তে ভালোবাসলে এই কটা দিন বই পড়ে সময় কাটাতে পারেন, সঙ্গে শারদীয়া নানা পত্রিকা তো রয়েছে।

 

·       সারাবছর অফিসের কাজে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে না পারলে পুজোর এইকটা দিন সময় কাটান পরিবারের সঙ্গে।  মন চাইলে সময় দিতে পারেন পোষ্যকেও।

·      পুজো মানে সমস্ত ডায়েট ভুলে জমিয়ে খাওয়াদাওয়া। বাড়িতে রান্না হরেকরকম রান্না করুন, না হলে  অর্ডার দিয়ে বাড়িতে আনিয়ে নিন ইচ্ছেমতো কোনও খাবার। নয়তো বন্ধুবান্ধব বা পরিবারের সঙ্গে কোনও রেস্টুরেন্টে গিয়ে খেতে পারেন খাবার।

·     বাড়িতে বন্ধুবান্ধবদের ডেকে নিয়ে পার্টির বন্দোবস্তও করতে পারেন এই কটাদিন। চুটিয়ে আড্ডা দিলেই দেখবেন আপনার সারা বছর কাজের ক্লান্তি কেটে যাবে খুব সহজেই।

 

 

sreemoyee

(Visited 1 times, 1 visits today)