ভুয়ো খবর ঠেকাতে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেবে ফেসবুক

0
25

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ফেসবুক ক্রমশই একটি জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হয়ে উঠছে। একদিকে ফেসবুক যেমন মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ বৃদ্ধির অন্যতম মাধ্যম, অপরদিকে এই ফেসবুকের মাধ্যমে অনেক অসামাজিক কাজও প্রশ্রয় পাচ্ছে। এমনকি ফেসবুকের মাধ্যমে ভুয়ো খবর ছড়িয়ে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করে চলেছে একশ্রেণির কুচক্রী মানুষ। আর এই অপরাধমনস্ক মানুষের জন্য ফেসবুকের মাধ্যমে অসামাজিক কাজ মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে।

এই কারণে বার বার সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে।
সম্প্রতি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা জানিয়েছেন, এই ব্যাপারে পিছিয়ে নেই রাজনৈতিক দলগুলিও।

আরও পড়ুন:{পৃথিবীর মতো দেখতে নতুন গ্রহ K2-18B নিয়ে গবেষণায় বিজ্ঞানীরা}

গ্লোবাল ইনভেনটরি অব অরগানাইজড সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানিপুলেশন’ শীর্ষক গবেষণা নিবন্ধে বলা হয়, ৭০টির মতো দেশে সরকার ও রাজনৈতিক দলগুলো ফেসবুকের অপব্যবহার করছে। সমীক্ষায় জানা গেছে, ফেসবুকে ভুয়ো খবর ছড়ানোর প্রবণতা গত দু বছরে বিগত দিনের তুলনায় বেড়েছে।
যে ৭০টি দেশের তালিকা এসেছে তার মধ্যে ভারত, পাকিস্তান ও মায়ানমারের নাম উঠে এসেছে। পাশাপাশি ওই তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরব, ইরান, চিন, তুরস্ক, রাশিয়া, থাইল্যান্ড, ব্রাজিল, স্পেনের মতো দেশও রয়েছে।
গবেষকেরা তিন বছর ধরে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম পর্যবেক্ষণ করে এই সিদ্ধান্তে এসেছেন।
ফেসবুকে ভুয়ো খবর ঠেকাতে ব্যর্থতার কারণে বিভিন্ন দেশের রাজনীতিবিদ ও আইনপ্রণেতারা কয়েক বছর ধরে ফেসবুকের ওপর কড়া নজর রেখেছেন। ২০১৬ সালে মার্কিন নির্বাচনের পর থেকে শুরু হওয়া এসব সমালোচনার জবাবে ফেসবুক বেশ কিছু পদক্ষেপের কথা জানায়।
এ বছরের শুরুতে ফেসবুক জানায়, যেসব গ্রুপে ভুয়ো তথ্য শেয়ার করা হবে সেখানে গ্রুপ অ্যাডমিনকে শাস্তির আওতায় আনা হবে। এ ছাড়া বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রেও নতুন যাচাই প্রক্রিয়া চালু করেছে ফেসবুক।
গবেষকেরা বলেন, ২০১৮ সালে ৪৮টি দেশ ফেসবুকে ভুয়ো তথ্য ছড়ানোর কাজ করত। ২০১৭ সালে মাত্র ২৮টি দেশ থেকে ভুয়ো খবর ছড়ানোর অভিযোগ ছিল। এসব দেশের অন্তত একটি রাজনৈতিক দল বা সরকারি সংস্থা সামাজিক যোগাযোগের সাইট ব্যবহার করে জনগণের ব্যবহারের ওপর প্রভাব ফেলার চেষ্টা করে।
ফেসবুকের তরফ থেকেও জানা গেছে, তারা আরও স্বচ্ছতা আনার চেষ্টা করছে। সেই সঙ্গে ভুয়ো খবর ঠেকাতে বিশেষজ্ঞদের সাহায্য নেবে ফেসবুক।

bipasha

(Visited 4 times, 1 visits today)