মাঝরাতে বধূর ঘরে ঢুকে পুলিশের জালে প্রেমিক

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | September 3, 2019 | 10:47 pm

নিজস্ব প্রতিনিধি, সোনারপুর : মাঝরাতে বধূর ঘরে ঢুকে আপত্তিকর অবস্থায় হাতে নাতে ধরা পড়ল প্রেমিক। আর সোমবার রাতে তা নিয়েই চাঞ্চল্য ছড়াল সোনারপুর থানার কোদালিয়ার মুসলিমপাড়াতে। বধূ ও তার প্রেমিককে পুলিশের হাতে তুলে দেন শ্বশুর বাড়ির লোকজন। মঙ্গলবার তাদের আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। স্থানীয় মানুষ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কোদালিয়ার বাসিন্দা তপন সাউয়ের সঙ্গে মাত্র ১ বছর আগে মালঞ্চের সরকার পাড়া মোড়ের বাসিন্দা মৌসুমির বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে মাঝে মধ্যে অশান্তি হচ্ছিল। কিন্তু তা নিজেদের মধ্যে মিটিয়ে নিচ্ছিলেন স্বামী। দাদা স্বপন সাউ ও বৌদির সঙ্গে একই বাড়িতে থাকেন তপন ও তাঁর স্ত্রী। স্বপনবাবুর অভিযোগ, সোমবার রাত ১২ টার পর তিনি ঘরের বাইরে বাথরুম করতে বের হয়েছিলেন। আচমকাই বাগানের মধ্যে একজোড়া জুতো খোলা দেখতে পান। চোর এসেছে বলে তাঁর সন্দেহ হয়। তিনি ভাইকে ডাকাডাকি শুরু করেন। কিন্তু ভাই তপন তখনও কাজ থেকে বাড়ি ফিরে আসেন নি। ফলে স্বপন তাঁর স্ত্রীকে বিষয়টি জানান। স্ত্রী দেওর তপনের ঘরের বাইরে থেকে তার বউকে ডাকাডাকি করেন। প্রথমে দরজা খোলে নি দেওয়ের বউ। পরে লোকজন বেরিয়ে পড়তে দরজা খোলে। অভিযোগ তখন দেওরের বউকে এবং তার প্রেমিককে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পান তাঁরা। অভিযোগ, ওই অবস্থাতেই প্রেমিক যুগল তাঁদের হুমকি দিতে থাকে। গলা চেপে ধরে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাচ করতে থাকে। এরপর তাদের খুন করার হুমকি দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। দুজনকেই ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন তাঁরা। পুলিশ জানায়, অভিযুক্তের নাম সুভাষ দাস। তার বাড়ি সুভাষগ্রামের চন্ডীতলা এলাকায়। প্রেমিকার স্বামীর সঙ্গে আলাপের সূত্রেই ওই বাড়িতে যাতায়াত ছিল প্রেমিকের বলে জানতে পারা গেছে।

 

 

(firoz)

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট