টিপু সুলতানের ইতিহাসকে কর্নাটকের পাঠ্যপুস্তক থেকে মুছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত ইয়েদুরাপ্পা সরকারের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: টিপু সুলতান সম্পর্কিত সমস্ত ইতিহাসকে কর্নাটকের বিদ্যালয়ের পাঠ্যপুস্তক মুছে ফেলার সিদ্ধান্ত নিলেন কর্নাটকের বিজেপি সরকারের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা। মুখ্যমন্ত্রী জানান, তিনি মনে করেন না, ১৮ শতকের তৎকালীন মাইসোরের শাসক টিপু সুলতান একজন স্বাধীনতা সংগ্রামী ছিলেন। তাই টিপু সুলতাম সম্পর্কে সবকিছুই বাদ দিতে চায় সরকার। এমন কী পাঠ্য পুস্তক থেকেও। এব্যাপারে চিন্তাভাবনা চলছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কদিন আগেই বিজেপি বিধায়ক আপ্পাচু রাজন ভুল তথ্য চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে পাঠ্য বাতিলের দাবি তুলেছিলেন। সেই সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে মুখ্যমন্ত্রী সরকারের চিন্তাভাবনার কথা জানিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ লোকসান ও গুণ্ডামির জেরে পুরোপুরি বন্ধ হল ২৩০ ও ২০২ নম্বর রুটের বাস

ইয়েদুরাপ্পা এই ঘোষণার কড়া সমালোচনা করেছে কংগ্রেস। তাদের মতে পাঠ্য পুস্তক থেকে বাদ দেওয়ার কোনও সিদ্ধান্ত ইতিহাস বিকৃতের নামান্তর। বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা সিদ্ধারামাইয়া বিজেপিকে ধর্মান্ধ বলে বর্ণনা করেছেন। তাঁর প্রশ্ন টিপু সুলতান কি ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে লড়াই করেননি?

সোমবার রাজ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষামন্ত্রী সুরেশ কুমার দফতরের আধিকারিকদের বিধায়কের দাবি সম্পর্কে পরীক্ষা করে তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট চেয়েছিলেন। এছাড়াও মন্ত্রী কর্নাটক টেক্সট বুক সোসাইটির ম্যানেজিং ডিরেক্টরকে ইতিহাস বইয়ের ড্রাফটিং কমিটির বৈঠক ডাকতে বলেছেন। আর টিপু সুলতানের ইতিহাস জানতে ছাত্রছাত্রীদের কতটা প্রয়োজন, তা নিয়েও জানতে চেয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ উপত্যকা থেকে রাষ্ট্রপতি শাসন প্রত্যাহার

গত সপ্তাহেই আপ্পাচু মন্ত্রীর কাছে চিঠি লিখে স্কুলের পাঠ্যবই থেকে টিপু সুলতামকে বাদ দেওয়ার দাবি করেছিলেন। তাঁর অভিযোগ ছিল টিপু সুলতান হাজার হাজার খ্রিস্টান এবং কোডাভাসকে বলপূর্বক ইসলাম ধর্ম নিতে বাধ্য করেছিলেন। রাজ্যে ক্ষমতায় আসার পরেই জুলাই মাসে বিজেপি সরকার টিপু সুলতানের জন্ম শতবর্ষের অনুষ্ঠান বাতিল করে দিয়েছিল। অনেক দিন থেকেই বিজেপি এবং দক্ষিণপন্থী দলগুলি টিপু সুলতানের বিরোধিতা করে আসছে।

MIJANUR

(Visited 19 times, 1 visits today)

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here