শীতের হাওয়ার লাগল নাচন

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: শীতের হাওয়ার লাগল নাচন আম্লকির এই ডালে ডালে

পাতাগুলি শির্শিরিয়ে ঝরিয়ে দিল তালে তালে………

ক্যালেন্ডারে  পাতা উল্টে বছর ঘুরে আবার আসছে শীত। এসে গেছে ঘরে ঘরে পিঠে পায়েশ খাওয়ার সময়। ছুটির দিনে ময়দান, চিড়িয়াখানা, বনভোজনের মজা শীতের সঙ্গতে দ্বিগুণ করে দেয়। কিন্তু বেশ কয়েক বছর ধরে বঙ্গের আবহাওয়ার চেহারায় বদল এসেছে। বিগত কিছু বছর ধরে শীত বাবাজি ব্যাটিং ভালো ফল করতে পারছে না।  সময় মেনে আর রাজ্যে প্রবেশ করে না শীত। শহর কলকাতায় ঠাণ্ডার হালকা প্রভাব পড়েছে বটে, সকাল ও রাতে একটু হলেও পাখার বাতাসেও শীত শীত করে।
হেমন্তের শেষে বঙ্গবাসীর মনে প্রশ্ন উঁকি দিয়েছিল শীত আসতে এ বছর কত দেরি হবে? সমস্ত জল্পনার নিরসন ঘটিয়ে আজ শনিবার আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়ে দিল নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টি  হতে পারে। আর এই বৃষ্টিই শীতের আগমন ঘটাতে চলেছে।

আগামীকাল রবিবার থেকেই নামবে তাপমাত্রার পারদ। অবশেষে শীত সমাগত। শহর জুড়ে যেন প্রেমের মরশুম। সকালে সুন্দর রোদ, তারপর সন্ধ্যে নামতেই হালকা ঠাণ্ডা অনুভূতি। ভোরবেলা দেখা যাচ্ছে কুয়াশাও । আপাতভাবে আবহাওয়া শুষ্ক থাকবে বলে জানানো হয়েছে। আবহাওয়া দফতরের দেওয়া পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ২ দিন শহর কলকাতা কিংবা সংলগ্ন জেলাগুলিতে বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। আকাশ পরিষ্কার থাকবে। তবে আগামী দিনগুলিতে দক্ষিণবঙ্গের মানুষ সকালের দিকে শীতের আমেজ পাবেন। দিনের বেলায় তাপমাত্রা কিছুটা বাড়বে।

আগামী মাসের শুরুতে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টি হবে বলেও জানানো হয়েছে। তবে তা হবে হাল্কা থেকে মাঝারি রকমের। আবহাওয়া দফতরের তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে, আগামী কয়েকদিন উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে  বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। আকাশ  থাকবে পরিষ্কার। অতিপ্রবল ঘূর্ণিঝড় কিয়ার দেশের পূর্বাংশে কোনও প্রভাব ফেলতে পারেনি। বর্তমানে ভারতের দক্ষিণাংশে জাকিয়ে বসা ঘূর্ণিঝড় ‘মহা’ও কোন প্রভাব ফেলবে না পশ্চিমবঙ্গে বলেই জানিয়ে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

(Visited 15 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here