মালদায় ধর্ষিতার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি আতঙ্কে গ্রাম ও পরিবার 

মালদাঃ স্কুল ছাত্রীকে টাকার লোভ দেখিয়ে ধর্ষন। ঘটনার পর থেকে ধর্ষিতার পরিবারকে অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি। অভিযোগ না তুললে পরিবার ও গ্রামবাসীদের প্রাননাশের হুমকি।ঘটনার আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে গোটা গ্রাম।ঘটনাটি ঘটেছে মালদা থানার মুচিয়া গ্রামপঞ্চায়েতের মোহজুমপুর গ্রামে। বাধ্য হয়ে গ্রামবাসীরা দ্বারস্থ হয়েছে পুলিশ প্রশাসনের। কিন্তু পুলিশ নির্বিকার।  আর যার ফলে অভিযুক্তের হুমকি শাসানিতে আতঙ্কিত গোটা গ্রাম। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে,অভিযুক্তর নাম বিশ্বনাথ চৌধুরী। ধর্ষিতার পরিবারের অভিযোগ,সম্প্রতি দ্বিতীয় শ্রেনীর এক নাবালিকাকে মাত্র ১৯টাকার প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক নির্যাতন করে  বিশ্বনাথ।বাড়ির বারান্দায় পিসির ছেলের সাথে খেলা করছিল ওই নাবালিকা ছাত্রী। সেই সময় অভিযুক্ত বিশ্বনাথ চৌধুরী নাবালিকা ছাত্রীকে টাকা দেওয়ার ছলনায় বাড়িতে ডাকে।নাবালিকা ছাত্রী টাকার লোভে সঙ্গে থাকা শিশুটিকে বাড়ির সামনে ছেড়ে বিশ্বনাথের ঘরে যায়। বিষয়টি লক্ষ্য করেন নাবালিকা ছাত্রীর পিসি। এরপর পিসি পিছু নেয় ছাত্রীর। খোঁজ শুরু করে তার। এরমধ্যেই বিশ্বনাথ তার অপকর্ম শুরু করে ফেলে। ঘটনা দেখতে পেয়ে নাবালিকার পিসি শুরু করে চিৎকার। পিসির চিৎকারে অভিযুক্ত ব্যাক্তি পালিয়ে যায়। নাবালিকাকে উদ্ধার করে মালদা থানায় অভিযোগ জানায় পরিবার। নাবালিকা ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষাও করা হয়। কিন্তু অভিযুক্ত এখনও অধরা। গোটা গ্রাম এমন ঘটনার জন্য অভিযুক্তের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছেন । তবে অভিযুক্তের পরিবার ও অভিযুক্তের হুমকি শাসানির ফলে আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা। এখনও অভিযুক্ত অধরা থাকায় পুলিশের ভুমিকা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে,ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে। তার খোঁজ শুরু করে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। মুচিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শুভলক্ষী গাইন বলেন,ঘটনার খবর পেয়েছি। যে এধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে আইন অনুযায়ী তার ব্যবস্থা হোক। মেয়েটির শাররীক অবস্থা যথেষ্ট সংকট জনক। প্রশাসনকে সমস্ত ঘটনা জানিয়েছি। পাশাপাশি গ্রামের মানুষের নিরাপত্তার কথাও জানিয়েছি।   যদিও শিশু ও নারী সুরক্ষা কমিটির সভানেত্রী চৈতালী ঘোষ সরকার জানান,ঘটনাটি অত্যান্ত নিন্দাজনক ঘটনা। অভিযুক্তকে কখনো রেহাত করা হবে না। আমরা ওই মেয়েটির পাশে রয়েছি। আমরা প্রশাসনকে বলেছি অভিযুক্ত গ্রেফতার করতে হবে। বিকৃত মস্তিষ্কের মানুষের পরিচয় দিয়েছে সে। এধরনের ঘটনার প্রতিবাদ জানায়।

 

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here