ছেলে, বৌমা ও নাতির বিরুদ্ধে নির্যাতণের অভিযোগ, ন্যায়বিচার পেতে মহকুমাশাসকের দ্বারস্থ বৃদ্ধা

পূর্ব বর্ধমান: নিজের ও স্ত্রীর নামে সম্পত্তি লিখিয়ে নেওয়ার জন্য বৃদ্ধা মাকে ঘরে আটকে রেখে মারধোর করার অভিযোগ উঠলো ছেলে ও বৌমার বিরুদ্ধে। লিখিতভাবে এই অভিযোগ করে ন্যায়বিচার চেয়ে কালনা মহকুমাশাসকের দ্বারস্থ হলেন ওই বৃদ্ধা মা। বিষয়টি তদন্ত করেই ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বাস দেন মহকুমাশাসক।

স্থানীয় ও মহকুমা শাসকের দফতর সূত্রে জানা যায় যে, অত্যাচারিত ওই বৃদ্ধা মোসলেমা মণ্ডলের স্বামী দুই বছর আগেই মারা যান। তার বাড়ি কালনার নান্দাই পঞ্চায়েতের দুপসা গ্রামে। তিনি মহকুমাশাসককে লিখিত অভিযোগে জানান, দুই বছর আগে তার স্বামী মারা যান। বারো বিঘে মতো তার জমি আছে। সেই ফসলের দাম দেওয়া তো দূরের কথা তার একমাত্র ছেলে মইন আহম্মেদ মণ্ডল তাকে চাপ সৃষ্টি করছে ওই সম্পত্তি নিজের ও তাঁর স্ত্রী গোলাপী বিবির নামে লিখে দেবার জন্য। এইকারণেই তাকে ঘরে আটকে রাখা থেকে মারধোর ও প্রাণে মারার হুমকীও দেয় নাতি গোলাম মর্তেজ মন্ডল ও তার ছেলে বৌমা। শেষপর্যন্ত তিনি কালনার রসুলপুরে মেয়ে জামাইয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিতে বাধ্য হোন।

যদিও ছেলে মইন আহম্মেদ মণ্ডল বলেন,‘মাকে মারধর বা তাড়িয়ে দেওয়া হয়নি।রসুলপুরে বোনের বাড়ি বেড়াতে যাচ্ছি বলে মা বেড়িয়ে যায়।’ওই বৃদ্ধার জামাই মহিম শেখ বলেন,‘ছেলের কাছ থেকে এমন খারাপ ব্যবহার কোনো মা-ই আশা করেন না।তাই শাশুড়ি মা মহকুমাশাসকের দ্বারস্থ হয়েছেন।’

এই বিষয়ে কালনা মহকুমা শাসক নীতেশ ঢালি বলেন,বিষটি খোঁজ খবর নেওয়া হবে।তারপরেই যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

(Visited 17 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here