দুষ্কৃতী হামলায় আহত দুই বিজেপি

ধর্মনগরে দুষ্কৃতী হামলায় আহত দুই বিজেপি কর্মী, ২০টি বাইক ও একটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ

ধর্মনগর (ত্রিপুরা): আসন্ন ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে দুষ্কৃতকারীদের হামলায় ২০টি মোটর বাইক ও একটি গাড়ি পুড়েছে। একই ঘটনায় আহত হয়েছেন দুই বিজেপি কর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর জেলা সদর ধর্মনগরের পশ্চিম চন্দ্রপুর মোটরস্ট্যান্ড এলাকায়। রবিবার সকালে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, আজ সকালে আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন উপলক্ষ্যে পশ্চিম চন্দ্রপুর মোটরস্ট্যান্ড এলাকায় প্রচারে গিয়েছিলেন বিজেপির এক দল কর্মী ও সমর্থক। সে সময় কতিপয় দুষ্কৃতকারী আচমকা বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা করে বসে। হামলায় দুই বিজেপি কার্যকর্তা গুরুতরভাবে জখম হয়েছেন। তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে ভরতি করা হয়েছে।

এদিকে দুষ্কৃতকারীরা ওই এলাকায় একটি গাড়ি-সহ ২০টি মোটর বাইকে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বাইকগুলি। খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে দুটি ইঞ্জিন নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে দমকল বাহিনী। তাদের প্রচেষ্টায় আগুন আয়ত্তে আসলেও সবকয়টি বাইক ও একটি ইন্ডিগো কার পুড়ে ভস্ম হয়ে গেছে।

এদিকে এই ঘটনায় পশ্চিম চন্দ্রপুর মোটরস্ট্যান্ড এলাকার পাশাপাশি গোটা ধর্মনগর জুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়েছে। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠে পশ্চিম চন্দ্রপুরের। মুহূর্তের মধ্যে এলাকার দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী ও টিএসআর নিয়ে ছুটে আসেন এসডিপিও, ওসি। এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে টিএসআর এবং পুলিশ বাহিনী।

ঘটনার সঙ্গে সিপিআইএম-কে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন বিজেপি নেতারা। জেলা বিজেপি সাধারণ সম্পাদক কাজল দাস বলেছেন, বিজেপি কার্যকর্তাদের ওপর হামলা এবং যানবাহনে অগ্নিসংযোগের পিছনে সরাসরি সিপিআইএম-এর কর্মীরা জড়িত। সাম্প্রতিককালের সব নির্বাচনে গোহারা হেরে উন্মাদ হয়ে গেছে সিপিএম। আজকের ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুষ্কৃতীদের অনতিবিলম্বে শনাক্ত করতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি তুলেছেন তিনি।

(Visited 2 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here