সহায়ক মূল্যে ধান কেনা হচ্ছে: মনোজ

ত্রিপুরা সরকার এখনও অবধি সহায়কমূল্যে ১০ হাজার মেট্রিকটন ধান কিনেছে: মন্ত্রী মনোজ দেব

আগরতলা: গত বছরের মতো এবছরও কৃষকদের কাছ থেকে সহায়ক মূল্যে ধান কেনা হচ্ছে। এবছর ত্রিপুরা সরকারের খাদ্য ও জনসংভরণ দফতর সরাসরি রাজ্যের বিভিন্ন মহকুমার চাষিদের কাছ থেকে ধান কিনছে। গত বছরেরে মতো এবছরও কৃষকদের কাছ থেকে সহায়ক মূল্যে ধান কেনা হচ্ছে। এবছর ত্রিপুরা সরকারের খাদ্য ও জনসংভরণ দফতর সরাসরি রাজ্যের বিভিন্ন মহকুমার চাষিদের কাছ থেকে ধান কিনছে। ইতিমধ্যে রাজ্য সরকার ১০,০০০ মেট্রিক টনের বেশি ধান কিনেছে। এখনও ধান কেনার প্রক্রিয়া চলছে, হিন্দুস্থান সমাচার-কে এক একান্ত সাক্ষাৎকারে এ-কথা জানান খাদ্য ও জনসংভরণ দফতরের মন্ত্রী মনোজকান্তি দেব।

মন্ত্রী দেব আরও জানান, রাজ্য সরকার চাষিদের কাছ থেকে প্রতি কুন্টাইল ধান ১৭,০৫০ টাকা দরে কিনছে। গত বছর প্রথমবারের মতো রাজ্য থেকে এফসিআই সহায়ক মূল্যে ধান কিনেছে, তাও রাজ্য সরকারের চেষ্টায়। এর জন্য রাজ্য সরকার এসফসিআইকে ভর্তুকি দিয়েছে। তাই এবছর রাজ্য সরকার নিজেই সহায়ক মূল্যে ধান কিনছে চাষিদের কাছ থেকে। পরবর্তী সময় এই ধান ভাঙিয়ে ন্যায্য মূল্যের দোকানের মাধ্যমে তা সাধারণ মানুষের কাছে বিতরণ করা হবে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী চাষিদের আয় দ্বিগুণ করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারই অঙ্গ হিসেবে ত্রিপুরা সরকার চাষিদের কাছ থেকে ধান কিনছে, বলেন মন্ত্রী দেব। তিনি আরও বলেন, চাষিরা সরকারের এই পদক্ষেপে খুব খুশি। প্রায় সব চাষিই সরকারের কাছে ধান বিক্রি করতে চাইছে। কারণ বাজারের চেয়ে তুলনামূলকভাবে সরকার বেশি দামে সরাসরি ধান কিনছে চাষিদের কাছ থেকে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here