শাসক দলের সন্ত্রাসের প্রতীবাদে পথে ব্যবসায়ীরা, পথ অবরোধ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার: ঘুঘুমারীতে মঙ্গলবারের রাজনৈতিক হিংসা ও বোমাবাজির পর আজ এলাকায় ২৮ ঘন্টার ব্যবসা বন্ধের ডাক দিয়েছে এলাকার ব্যাবসায়িরা। এই বন্ধের জেরে ঘুঘুমারী বাজারে একটি দোকানও খোলেনি, বন্ধের পাশাপাশি এদিন ঘুঘুমারী মোড়ে বেশ কিছুক্ষণ পথ অবরোধ করে ব্যবসায়ীরা। মঙ্গলবারের বোমাবাজির ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার ও ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তার দাবীতে এদিন বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। এদিক ব্যবসায়ীদের একাংশ সরাসরি মঙ্গলবারের বোমাবাজির জন্য তৃণমূলকেই দায়ি করেছেন।

মঙ্গলবারের ঘটনার পর আজো থমথমে ঘুঘুমারী, এদিন ব্যবসায়ীরা পথে নামেন। ব্যবসা বন্ধের পাশাপাশি মিছিল করেন তাঁরা। অনেকেই সারাসরি তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছেন , তাঁদের অভিযোগ তৃণমূলের মিছিল থেকেই বোমাবাজি করা হয়, বাজারে বোমা ছোঁড়া হয়। এতে যথেষ্টই আতঙ্কিত ব্যবসায়ীরা। স্থানীয় ব্যবসায়ী অপু বিশ্বাস বলেন “ শাসক দলের মিছিল বলে পুলিশ কোন ব্যবস্থাই নেয়নি, আমরা দুষ্কৃতিদের গ্রেফতারের দাবি করছি, এই ভাবে ব্যবসা চালানো আমাদের পক্ষে অসম্ভব হয়ে পরেছে, আমরা নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি,”। এদিন ব্যবসায়ীদের মিছিল চলা কালীন সেখেন দিয়ে গাড়ি নিয়ে যাচ্ছিলেন স্থানীয় তৃণমুল নেতা সিরাজুল ইসলাম। স্থানীয় মানুষের দাবি এই সিরাজুল ইসলাম সহ বেশ কয়েকজনের নেতৃত্বে এই হামলা হয়ছে, এদিন সিরাজুল ইসলামের গাড়ি আটকানোর চেষ্টা করেন কেউ কেউ, তবে সেখান থেকে বেড়িয়ে যান তিনি, পরে সিরাজুল ইসলাম দাবি করেন তাঁর গাড়িতে হামলা করে গাড়ি ভাঙচুর করেছে বিজেপি। যদিও বিজেপি অভিযোগ অস্বীকার করেছে, তাঁদের দাবি তৃণমূলের অত্যাচারে সাধারণ মানুষ ভীত ছিল, এখন তাঁরা রুখে দাঁড়িয়েছে, তাই যারা এত দিন ধরে তাঁদের উপর অত্যাচার করছে তাঁদের উপর ক্ষোভ আচরে পরছে।

(Visited 2 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here