‘এটা খুবই নীচ চিন্তাভাবনা’ ৩৭০ ধারা বাতিল প্রসঙ্গে কমল হাসান

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার নিয়ে উত্তাল দেশ। সোমবার রাজ্যসভায় বিল পাসের পর মঙ্গলবার সকালে লোকসভায় জম্মু-কাশ্মীর পুনর্গঠন বিল ২০১৯ পেশ করল মোদী সরকার। জম্মু-কাশ্মীরকে দু’ভাগ করে দুটি পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করা হয়েছে। জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ জোড়া কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করা হয়েছে। যার মধ্যে জম্মু-কাশ্মীররে বিধানসভা থাকবে। কিন্তু লাদাখে বিধানসভা থাকবে না।

জম্মু-কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রস্তাব গতকাল দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তারপরেই বিকেলে রাজ্যসভাতে ভোটাভুটির মাধ্যমে জম্মু-কাশ্মীর পুনর্গঠন বিল পাশ হয়। গতকাল জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা ও ৩৫ এ রদ করা হয়। পাশাপাশি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসাবে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখকে আলাদা করে দুটি পৃথক কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চলে পরিণত করার জন্য রাজ্যসভায় পাশ হয়েছে। আর এই ঘটনাকেই গণতন্ত্রের হত্যা বলে দাবি করেছেন কমল হাসান। এর পাশাপাশি ফিনি এও বলেন, এটা খুবই নীচ চিন্তাভাবনা। সেকেলে মনোভাবাপন্ন চিন্তাভাবনা এটি। এইভাবে গণতন্ত্রের গলা রোধ করা যায় না। কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত ছিল সকলের সঙ্গে আলোচনা করে বিলটা পাশ করা।’ এই ধারার অবলুপ্তির পদ্ধতিকে নাকচ করেছেন। বিরোধী দলের সুরেই কথা বলে কমল জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকার গণতন্ত্রের গলা টিপে হত্যা করছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপকে ‘গণতন্ত্রের গণহত্যা বলে’ দাবি করেছেন তিনি।

 

(Visited 2 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here