বধূ হত্যায় ধৃত স্বামী ও শাশুড়ি

বধূকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার স্বামী ও শাশুড়ি

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: বধূকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে স্বামী ও শাশুড়িকে গ্রেফতার করল পুলিশ। পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থানার পুলিশ শুক্রবার রাতে ভান্ডুল গ্রামের বাড়ি থেকে তাঁদের গ্রেফতার করে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতরা হল বধূ রেহেনা বিবি (২৭)-র স্বামী আরোজ আলি মোল্লা ও শাশুড়ি ডালিয়া মোল্লা। শনিবার দুই ধৃতকেই পেশ করা হয় বর্ধমান আদালতে। বিচারক ধৃতদের জামিন নামাঞ্জুর করে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, রেহেনা বিবির বাবার বাড়ি মেমারির কুচুট গ্রামে। প্রায় ছ’বছর আগে মেমারির ভান্ডুল গ্রাম নিবাসী আরমান মোল্লার ছেলে আরোজ মোল্লার সঙ্গে রেহেনার বিয়ে হয়। এই দম্পতির একটি পুত্র ও একটি কন্যা সন্তান আছে। রেহেনার বাবা গোলাম মোস্তফা মেমারি থানায় লিখিত অভিযোগে জানিয়েছেন যে, তাঁর জামাই অন্য এক বিবাহিত মহিলার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। সেকথা জানতে পেরে তাঁর মেয়ে রেহেনা প্রতিবাদ করত। সে কারণে রেহেনার উপর নির্যাতন চালানো শুরু করে তাঁর স্বামী আরোজ আলি মোল্লা। গোলাম মোস্তফার অভিযোগ রেহেনার উপর নির্যাতন চালানোয় মদত জোগাতো তাঁর শাশুড়ি ডালিয়া মোল্লা।

এরপর শুক্রবার দুপুরে শ্বশুর বাড়ির একটি ঘর থেকে মেলে রেহেনার ঝুলন্ত দেহ। তাঁকে উদ্ধার করে মেমারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক রেহেনাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওই দিনই জামাই আরোজ মোল্লা ও শাশুড়ি ডালিয়া মোল্লার বিরুদ্ধে রেহেনাকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করেন গোলাম মোস্তফা। দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করে তদন্তে নেমে পুলিশ দু’জনকে গ্রেফতার করে ।

(Visited 14 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here