দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা খুব খারাপ, অভিযোগ অমিত মিত্রর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | August 11, 2019 | 1:41 pm

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র উদ্যোগপতিদের হয়রানি করছে বলে অভিযোগ করলেন পশ্চিমবঙ্গের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র| শনিবার তিনি নবান্ন-তে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, “দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা খুব খারাপ। নতুন প্রকল্পে বিনিয়োগের পরিমাণ গত দেড় দশকের মধ্যে এখন সবচেয়ে কম। যে সব প্রকল্পের ঘোষণা করা হয়েছিল, রূপায়িত হয়েছে তার চেয়ে ৮১ শতাংশ কম।”
অর্থমন্ত্রী বলেন, একটি গভীর মন্দা ভারতীয় অর্থনীতির দরজায় কড়া নাড়ছে। গত ৫ বছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধি সর্বনিম্ন। এর অর্থ হল সাধারণ মানুষ প্রচণ্ড চাপের মধ্যে রয়েছে। বিগত ৪৫ বছরে বেকারত্ব সবচেয়ে বেশি। বিশেষত পরবর্তী প্রজন্মের জন্য দেশে কোনও কাজের সুযোগ নেই|
অমিতবাবুর অভিযোগ, গত জুন মাসে ভারত সরকারের তথ্য বলছে গত বছরের তুলনায় শিল্প বৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ২ শতাংশ। আগের বছর এই হার ছিল ৭ শতাংশ। শিল্প উৎপাদন সূচক গত জুনে ছিল ১.২ শতাংশ। গত বছর জুনে এটি ছিল ৬.৮ শতাংশ। মূলধন পণ্য খাতে প্রবৃদ্ধির হার ২০১৮-র জুনে ছিল ৯.৭ শতাংশ তা নেমে এসেছে ৬.৫ শতাংশ এ। উৎপাদন বৃদ্ধি ২০১৮-র জুন মাসে ছিল ৬.৯ শতাংশ| তা নেমে এসেছে ১.২-শতাংশ।
অর্থমন্ত্রীর দাবি, ভারতে বেকারির হার হয়েছে ৬.১ শতাংশ| নতুন প্রকল্পে বিনিয়োগের পরিমাণ গত দেড় দশকের মধ্যে এখন সবচেয়ে কম। যে সব প্রকল্পের ঘোষণা করা হয়েছিল, রূপায়িত হয়েছে তার চেয়ে ৮১ শতাংশ কম। প্রত্যক্ষ বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই)-এর হাল খুব খারাপ। ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে ১.০৯ শতাংশ ঋণাত্মক|
অমিতবাবুর অভিযোগ, এই অবস্থা গোটা নীতিকে পঙ্গু করে দিচ্ছে। কেন্দ্র উদ্যোগপতিদের হয়রানি করছে| যারা সিএসআর এর ২ শতাংশ ব্যয় করতে পারেন না, তাঁদের গ্রেফতার করছে, বা আত্মসমর্পণ করতে হচ্ছে। উদ্যোগপতিরা ভয়ে আছেন। অথচ এখন পশ্চিমবঙ্গে আমরা অনেক এগিয়ে। আমরা অনেকগুলি খাতে শীর্ষে আছি।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট