স্কুলছুটদের ফেরাতে চায় প্রশাসন

১৬ থেকে ১৮ বছর বয়সী স্কুলছুট দের ফিরিয়ে পড়ানো এবং কর্ম প্রশিক্ষণ শুরু প্রশাসনের

মেদিনীপুর: সরকার পোষিত বিদ্যালয়গুলিতে পোশাক, খাবার, সাইকেল সহ বিভিন্ন রকম সুবিধা দেওয়ার পরেও অনেকেই বিদ্যালয় ছুট হয়ে যাচ্ছে অর্থনৈতিক কারণে। রোজকার করে পরিবারের পাশে দাঁড়াতে ছাত্র ছাত্রীরা কোন না কোন কাজে ঢুকে পড়ছে। অনেক ছাত্রীদের কম বয়সে বিয়ে দিয়ে দিচ্ছেন পরিবারের লোকজন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে করা সার্ভেতে সম্প্রতি এমন ১৬ থেকে ১৮ বছর বয়সী দশ হাজারের কিছু বেশি স্কুল ছুটের পাওয়া গিয়েছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাতে। তাদের জন্যই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে শুরু হলো “উৎকর্ষ বাংলা” প্রকল্প। যেখানে ওই যুবক যুবতীদের মুক্ত বিদ্যালয় থেকে পড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে যে যেকর্মে নিযুক্ত সেই ক্ষেত্রে তাকে প্রশিক্ষণও দেওয়া হবে। সোমবার থেকে সেই উদ্দেশ্যে প্রাথমিক বৈঠক হয়ে গেল মেদিনীপুর সদর ব্লকের চাঁদড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে। যেখানে উপস্থিত ছিলেন ওই ধরনের স্থানীয় স্কুল ছুট ছেলেমেয়েরা সহ তাদের অভিভাবকগন। তাদের সামনে পুরো বিষয়টি বোঝান মেদিনীপুর সদর গ্রামীণ চক্রের বিদ্যালয় পরিদর্শক ওঙ্কার পন্ডা, সর্বশিক্ষা মিশনের কো অর্ডিনেটর মৃনাল কান্তি মন্ডল সহ অন্যান্যরা। ওঙ্কার পন্ডা বাবু জানিয়েছেন-” মেদিনীপুর সদর এলাকাতেই চাঁদড়া, তারপরে গুড়গুড়িপাল উচ্চ বিদ্যালয়, পরেখয়েরুল্লাচক উচ্চ বিদ্যালয়েও এই ধরনের শিবির করা হবে। যেখানে ছাত্র-ছাত্রীসহ অভিভাবকদের এই প্রকল্পে অন্তর্গত হওয়ার আহ্বান জানানো হবে।” পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় আপাতত মেদিনীপুর সদর ব্লক ছাড়াও কেশিয়াড়ি এবং দাসপুর-২ ব্লক এ এই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে একইভাবে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here