প্রসূতির মৃত্যু ঘিরে উত্তেজনা পান্ডুয়ায়

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | July 11, 2019 | 8:06 pm

প্রসূতি মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা পান্ডুয়ায়

হুগলি: প্রসূতি মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়াল পান্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতাল চত্ত্বরে। গত মঙ্গলবার বুকে শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যায় নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সুষমা বেদ নামে বছর উনিশের এক মহিলা। তাঁর বাড়ি পান্ডুয়ার সোনার গ্রামে। বৃহস্পতিবার সকালে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে চুঁচুড়া হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। চুঁচুড়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় প্রসুতির ও শিশুটির। এরপরে উত্তেজনা ছড়ায় হাসপাতাল চত্ত্বরে। রোগীর পরিবার হাসপাতালের সামনের গেটে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। পরে পান্ডুয়া থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে পান্ডুয়া থানায়, বি এম ও এইচ, সি এম ও এইচের কাছে লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে জানান রোগীর পরিবার। পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। সুষমার পরিবারের অভিযোগ, গত মঙ্গলবার শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা নিয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করি। একদিন পর থেকেই তাকে সঠিকভাবে দেখেনি ডাক্তারা। এটা সম্পূর্ণ চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ এই মৃত্যু হয়েছে। এমন সময় তাকে অন্য হাসপাতালে স্হানান্তরিত করা হয়েছে যে অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পায়নি। আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন সুসমা। আমরা ডাক্তার কে আগেই অন্য হাসপাতালে স্থানান্তিরিত করার কথা জানিয়েছিলাম। গ্রামীণ হাসপাতালে সিজার করার মতো পরিকাঠামো নেই। অবস্থা খারাপ বুঝে আগেই চুঁচুড়া রেফার করলে হয়তো বেঁচে যেত প্রসূতি ও তার গর্ভস্থ সন্তান। আমরা চাই দোষী ব্যক্তির উপযুক্ত শাস্তি হোক।

পান্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে বি এম ও এইচ শ্রীকান্ত চক্রবর্তী জানিয়েছেন, শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা ছিল, তাই আজ সকালে নটা নাগাদ তাকে অন্য হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। পরে তারা চুঁচুড়া হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে আবার তাকে পান্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এই ঘটনায় পুরো বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি ।যদি কেউ দোষী প্রমাণিত হয় তাহলে সে উপযুক্ত শাস্তি পাবে।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *