শিবসেনা চাইলেই মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন করতে পারে: সঞ্জয় রাউত

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  ফল প্রকাশের পর বেশ কিছু দিন কেটে গেছে, এখনো পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন করতে পারল না বিজেপি-শিবসেনা জুটি৷ উপরন্তু সরকার গঠন নিয়ে দুই দলের মধ্যে ক্রমেই বেড়ে চলেছে মত বিরোধ। ৫০:৫০ সরকার থেকে কোনভাবেই পিছু হটবে না শিবসেনা তা তারা আগেই জানিয়েছিল। এমনকি তাঁদের মুখপত্রতে পরোক্ষভাবে জানিয়েছিল দরকার পড়লে তারা অন্য রাস্তা নিতেও প্রস্তুত। কিন্তু তা সত্ত্বেও কোনভাবেই শিবসেনার কাছে মাথা নত করতে রাজী নয় পদ্ম শিবির। শিব সেনার একপ্রকার বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রাখাই বন্ধ করে দিয়েছে। উলটে তাঁরা যোগাযোগ করছে শরদ পওয়ারের সঙ্গে। খোদ শিব সেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকর ফোনে কথা বলেছেন মারাঠা স্ট্রং ম্যানের সাথে। বিজেপিকে বাইরে রেখে বিকল্প সরকার গঠনের ব্যপারে আলোচনা করেছেন তাঁরা।

উদ্ধব ঠাকরেকে আশ্বস্ত করেছেন, প্রয়োজনে তিনি নিজে সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে কথা বলবেন। সূত্রের খবর, এনসিপি সুপ্রিমো খুব দ্রুত দিল্লি উড়ে আসছেন সোনিয়ার সঙ্গে আলোচনা করতে। এছাড়াও এনসিপির তরফে সোনিয়াকে চিঠিও লেখা হয়েছে। এদিকে, সোনিয়া চাইলেই যে কংগ্রেস শিব সেনাকে সমর্থন করতে পারবে সেটাও নয়। কারণ, কংগ্রেসের অন্দরেই এ নিয়ে দ্বিমত আছে। দলের বর্ষীয়ান নেতা সুশীল কুমার শিন্ডে বলছেন, কংগ্রেস কখনও শিব সেনার মতো সাম্প্রদায়িক দলের সঙ্গে জোটে যেতে পারে না। সেক্ষেত্রে অবশ্য, সরকারকে বাইরে থেকে সমর্থনের রাস্তা খোলা থাকছে।

[আরও পড়ুন: সৌগত, শুভেন্দু, কাকলী ও প্রসূনের বিরুদ্ধে নারদা কাণ্ডে চার্জশিট দিতে চলেছে সিবিআই]

শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, তার দল বিজেপির সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী পদ সমানভাবে ভাগ করার দাবিতে এখনও স্থির। কোনভাবেই নিজেদের দাবি থেকে তারা সরবে না। তিনি জানিয়েছেন” আমি কখনওই বলিনি যে শিবসেনা সমানভাবে ক্ষমতা ভাগ করা নিয়ে তাদের সুর নরম করেছে। ৫০:৫০ ফর্মুলার মানে কি দাঁড়াল তাহলে? মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ার কি এই নিয়মের মধ্যে আসছে না? এই পদের সমানভাবে ভাগ হবে।” তিনি আরও জানিয়েছেন, যদি তার দল মরিয়া হয়ে ওঠে তাহলে খুব সহজেই মহারাষ্ট্রে সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে সরকার গঠন করতে পারবে। মানুষজন ৫০:৫০ ফর্মুলা মেনেই নির্বাচনে তাদের মত প্রকাশ করেছিল। তারা শিবসেনা থেকে মুখ্যমন্ত্রী চায় বলেও জানিয়েছেন শিবসেনার এই সাংসদ।

তিনি আরও জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন করার ক্ষেত্রে তার দল এখনও পর্যন্ত কংগ্রেসের সঙ্গে কথা বলার বিষয়ে কোন ভাবনাচিন্তা বা কোন পরিকল্পনা করে নি। প্রত্যেক দলের নির্দিষ্ট কিছু মতামত, কিছু চিন্তাধারা থাকে। আর দরকার পড়লে শিবসেনা সংখ্যা গরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারে।

৫০:৫০ দাবিতে অটল থাকার পরেও বিজেপি কোনভাবেই মাথা নত করতে রাজি না। তারা জানিয়েছিল কোনভাবেই মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ার অন্য কোন দলের সঙ্গে তারা ভাগ করবে না। এছাড়াও ১৩-২৬ ক্যাবিনেটের বিষয়টিও বাতিল করে। যদিও মহারাষ্ট্রের নির্বাচনে বিজেপি ও শিবসেনা জোট বেঁধে জয়লাভ করেছে। উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রে বিজেপি পেয়েছে ১০৫ টি আসন এবং শিবসেনা ৫৬ টি। এনসিপির দখলে ৫৪ টি আসন এবং কংগ্রেস পেয়েছে ৪৪ টি আসন।

(shreyashree)

(Visited 13 times, 1 visits today)

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here