সুপ্রিম কোর্টের এক রায়কে হাতিয়ার করেই শীর্ষ আদালতে যাচ্ছেন শেহলা রশিদ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | August 6, 2019 | 7:45 pm

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার নির্দেশিকাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে শীর্ষ আদালতে যাচ্ছেন জেএনইউ ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সভানেত্রী শেহলা রশিদ। হাতিয়ার ২০১৮ সালের সুপ্রিম কোর্টের একটি রায়। ফলে কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ সুপ্রিম কোর্টে আইনি পরীক্ষার মুখে পড়তে চলেছে।

জানা যাচ্ছে, ৩৭০ ধারা নিয়ে ২০১৮ সালে সুপ্রিম কোর্টের একটি বেঞ্চ রায় দেয়, ৩৭০ অনুচ্ছেদ আর অস্থায়ী নয়। দীর্ঘ সময় সংবিধানের অংশ হিসেবে থাকায় তা প্রায় স্থায়ী অনুচ্ছেদের মর্যাদা পেয়েছে। এই রায়কে ভিত্তি করে মামলা করতে চলেছে প্রাক্তন আইএএস শাহ ফয়সলের তৈরি নতুন রাজনৈতিক দল জম্মু-কাশ্মীর পিপল্‌স মুভমেন্ট । এই দলের নেত্রী শেহলা রশিদ বলেন, ‘‘আমরা এ দিনের রাষ্ট্রপতির নির্দেশিকাকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যাব।’’ বস্তুত মোদী সরকারের যুক্তি, সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদেই রাষ্ট্রপতিকে ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে তিনি যে কোনও সময় এই অনুচ্ছেদ রদ করে দিতে পারেন। কারণ এই অনুচ্ছেদ অস্থায়ী।

প্রসঙ্গত, সোমবার রাজ্যসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কাশ্মীরের জন্য নির্ধারিত ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার ঘোষনা করেন । এরপরেই সন্ধ্যায় রাজ্যসভায় কাশ্মীর পূর্ণগঠন বিল পাশ করিয়ে নেন। এরফলে কাশ্মীরকে দুভাগে ভাগ করা হয়েছে যা লাদাখ এবং জম্মু-কাশ্মীর নামে পরিচিত হবে ।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট