অস্ট্রেলিয়ায় ভুয়ো ভিক্ষাবৃত্তি, ৭ চিনা নাগরিক আটক

ভুয়া ভিক্ষাবৃত্তির দায়ে অস্ট্রেলিয়ায় আটক এক চিনা নাগরিক। ছবি: সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়ায় ভুয়ো ভিক্ষাবৃত্তির দায়ে ৭ চিনা নাগরিক আটক

অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া রাজ্যে সাতজন ভুয়ো ভিক্ষুককে আটক করেছে রাজ্য পুলিশ। নিজেদের গৃহহীন পরিচয় দিয়ে তাঁরা দীর্ঘদিন রাজ্যের রাজধানী মেলবোর্নে ভিক্ষাবৃত্তি করে আসছিলেন। আটকেরা সবাই চিনের নাগরিক।

মেলবোর্নের পুলিশ জানিয়েছে, এসব ব্যক্তিরা অস্ট্রেলিয়ায় টুরিস্ট ভিসায় প্রবেশ ও বসবাস করছিল। তাঁদের বয়স ৬৫ থেকে ৭২ এর মধ্যে। তিনজন নারী ও চারজন পুরুষ। গত শুক্রবার একজন পুরুষ ভুয়ো ভিক্ষুককে আটক করার পর তাঁর দেওয়া তথ্যে আরও অন্য ছয়জনকে আটক করা হয়। তবে তাঁদের পরস্পরের মধ্যে কোনও সম্পর্ক আছে কি না তা জানায়নি পুলিশ।

অস্ট্রেলিয়ার মোট জনসংখ্যার মাত্র ১৩ শতাংশ দারিদ্র্যসীমার নীচে বসবাস করে-যার সিংহভাগেরই বসবাস দেশটির আঞ্চলিক রাজ্যগুলোতে। এছাড়া গৃহহীন অস্ট্রেলিয়ানদের সংখ্যাও হাতেগোনা। ২০১৬ সালের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশটিতে প্রতি ১ লাখে ৪৫ জন গৃহহীন মানুষ বসবাস করেন। সরকার প্রতিনিয়ত তাঁদের পুনর্বাসনে কাজ করে যাচ্ছে। সেরকম একটি কার্যক্রমের অংশ হিসেবে স্থানীয় পুলিশ মেলবোর্নের সড়কে গৃহহীন ভিক্ষুকদের নিয়ে সমীক্ষা করার সময় এই ভুয়ো ভিক্ষুকদের আটক করে।

মেলবোর্নের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ অধিকর্তা জিওভ্যানি ট্রাভাগলিনি বলেন, ‘আমি এমন কাণ্ড আগে দেখিনি। তাঁরা টুরিস্ট ভিসায় অস্ট্রেলিয়ায় এসে ভিক্ষাবৃত্তির মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করছে। তাঁরা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবেই এ কাজ করছিলেন।’

তিনি জানান, আটক হওয়া এসব ব্যক্তিদের কাছ থেকে একাধিক মানি এক্সচেঞ্জের রসিদ পাওয়া গেছে। অস্ট্রেলিয়ান ডলারকে চিনা ইউয়ানে রূপান্তর করে চিনে পাঠাত তাঁরা। অস্ট্রেলিয়ায় এমন আরও ভুয়ো ভিক্ষুক রয়েছে কিনা এ বিষয়ে কড়া তল্লাশি চালাচ্ছে দেশটির পুলিশ।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *