কিছুদিনের জন্য আমাকে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী করুন, রাজ্যপালকে চিঠি এক অসহায় কৃষকের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের মধ্যে কৃষকদের দুরাবস্থার দিকদিয়ে প্রথম সারিতেই রয়েছে মহারাষ্ট্র। চাষি আত্মহত্যার নিরিখেও মহারাষ্ট্রের স্থান শীর্ষে। চাষিদের দুর্গতি কাটিয়ে তুলতে যতদিন না বিজেপি-শিবসেনা সংঘাত মিটছে ততদিন পর্যন্ত আমায় মুখ্যমন্ত্রী করুন। রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারিকে চিঠিতে এমনটাই আর্জি জানালেন মহারাষ্ট্রের বিড় জেলার ওয়াদমাউলি গ্রামের অসহায় কৃষক শ্রীকান্ত বিষ্ণু গাদালে।

সেই চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘যতদিন না বিজেপি–শিবসেনার এই বিবাদ মিটছে, ততদিন আমাকে মুখ্যমন্ত্রী করে দিন। অগস্টে বন্যার ফলে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তাই দ্রুত সরকার গঠন না হলে কৃষকরা আরও সমস্যায় পড়বেন। সরকার গঠনে বিজেপি–শিবসেনার সংঘাতে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। সমস্যার স্থায়ী সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আমাকে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী করে দিন। আমি কৃষকদের সমস্যার সমাধান করে দেব। ন্যায়বিচার পাবে কৃষক বন্ধুরা।’

ওই চিঠির কথা প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে চারিদিকে। একজন কৃষকের ওই চিঠি যে আসলে মহারাষ্ট্রের চাষিদের চরম দুরাবস্থারই প্রমাণ, সেই কথাই বলছেন সকলে। মহারাষ্ট্রে মুখ্যমন্ত্রিত্বের আসন নিয়ে এই সংঘাতে অনেকে আবার মজার ছলে বলিউড অভিনেতা অনিল কাপুরকেও মুখ্যমন্ত্রী করার কথা বলেছেন। ‘নায়ক’ সিনেমায় একদিনের জন্যে মুখ্যমন্ত্রী হওয়া অনিল কাপুরের এই চেয়ার সামলানোর অভিজ্ঞতা রয়েছে বলে তাঁকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন অনেকে।

উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রের ক্ষমতা দখল নিয়ে সংঘাত অব্যাহত বিজেপি ও শিবসেনার। মুখ্যমন্ত্রিত্বের চেয়ারে ৫০-৫০ ক্ষমতা ভোগের দাবি তোলা শিবসেনা এখনও বিজেপির কাছে নমনীয় হতে রাজি নয়। তাই দড়ি টানাটানি এখনও চলছে মারাঠাভূমে। যদিও বিজেপি দাবি করেছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই সরকার গঠন করছে তারা। যদিও তার কোনও জোরদার প্রক্রিয়া চোখে পড়েনি এখনও।

MIJANUR

(Visited 19 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here