আজকের গুরুত্বপূর্ণ খবর ৩পশ্চিমবঙ্গ

প্রভাবশালী প্রেমিকার ‘বিশ্বাসঘাতকতা’ ও হুমকির জের, বিষ খেয়ে আত্মঘাতী প্রেমিক

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: প্রেমিকার বিশ্বাসঘাতকতা ও হুমকির কথা ডাইরির পাতায় লিখে বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হল প্রেমিক। মৃতের নাম পবিত্র কুমার ঘোষ (২৬)। বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানার দুবরাজহাট গ্রামে।

মঙ্গলবার বর্ধমান হাসপাতাল পুলিশ মর্গে মৃত যুবকের দেহের ময়নাতদন্ত হয়। যুবকের মৃত্যুর জন্য তাঁর পরিবার সদস্যরা মামুলি থেকে প্রভাবশালী বনে যাওয়া প্রেমিকাকেই দায়ী করেছেন। যদিও তরুণীর বক্তব্য, ‘সব ফালতু কথা। যুবক তাঁর পরিচিত ছিল মাত্র।’ পুলিশ অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাতে বাড়িতে বিষ খায় যুবক পবিত্র ঘোষ। এদিন সকালে পরিবারের লোকজন দেখেন পবিত্র কুমার ঘরের বিছানায় অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তাঁর মুখ দিয়ে গেঁজলা বের হচ্ছে। এমনটা দেখার পরেই পরিবারের সদস্যরা দ্রুত তাকে উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক যুবককে মৃত ঘোষনা করেন। এর পরেই যুবকের পরিবার হাসপাতালে উপস্থিত সংবাদ মাধ্যমের কাছে প্রেমিকার বিরুদ্ধে যাবতীয় ক্ষোভ উগরে দেন।

আরও পড়ুন: আচার্যকে এড়িয়ে তৃণমূলের ধর্নামঞ্চে উপাচার্যরা, বিতর্ক

মৃত যুবকের জ্যেঠতুত দিদি মহুয়া ঘোষ বর্ধমান ১ ব্লকের নারী ও শিশু কর্মাধ্যক্ষ। এদিন তিনি সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘স্কুল জীবন থেকে খণ্ডঘোষের শ্যামডাঙার ওই তরুণীর সঙ্গে তাঁর ভাই পবিত্রর ভালবাসার সম্পর্ক তৈরি হয়। ITI পাশ করে ভাই দিল্লিতে কাজেও চলে যায়। কিন্তু ওই সময়ের মধ্যেই প্রভাবশালী বনে যাওয়া প্রেমিকা ভালকাজ দেখেদেবে বলে জানিয়ে পবিত্রকে দিল্লি থেকে ফিরে আসতে বলে। প্রেমিকার কথা রাখতে তাঁর ভাই সেখান থেকে বাড়িতে ফিরে আসে। এর কিছুদিন পর থেকেই প্রভাবশালী প্রেমিকা পবিত্রর সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে দিতে চায়। প্রেমিকা পুলিশ দিয়ে ব্যবস্থা নেবার হুমকি দেওয়া শুরু করে পবিত্রকে। অন্য লোক পাঠিয়েও চলে হুমকি দেওয়া।

আরও পড়ুনঃ গুলি করে মারার নিদান, দিলীপের বিরুদ্ধে জোড়া এফআইআর

মহুয়া ঘোষ আরও জানান, ‘এক দেড় মাস আগে তিনি এই সবকিছু জানার পর ওই তরুণীর সঙ্গে কোনরকম সম্পর্ক না রাখার কথা ভাই পবিত্রকে বলেছিলেন। কিন্তু ভাই ওই তরুণীকে অসম্ভব ভালবাসতো বলে সম্পর্ক ছিন্ন করে দিতে পারেনি। শেষমেষ প্রেমিকার বিশ্বাসঘাতকতা ও হুমকির সবিস্তার ডাইরির পাতায় লিখে ভাই বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হল।’

একই অভিযোগ করেছেন মৃতর জ্যেঠতুতো ভাই সঞ্জয় ঘোষ। তিনি থানায় অভিযোগ করেছেন বলে দাবি করলেও জেলার পুলিশ কর্তারা জানিয়েছেন, ‘আমরা কোনও অভিযোগ পাইনি’।

আরও পড়ুন: ‘কাগজ আমরা দেখাব না’…… এনআরসি ও সিএএ-র বয়কটের ডাক দিলেন টলি তারকারা

যুবকের এই মর্মান্তিক মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ হয়ে পড়েছে তাঁর পরিবার পরিজন ও প্রতিবেশীরা।

@মিজানুর রহমান

(Visited 54 times, 1 visits today)

Tags

Related Articles

Back to top button
Close
Close