ফেরিঘাট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ স্থানীয়দের

ভাড়া কমানোর দাবি নিয়ে ফেরিঘাট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ কালনায় 

নদিয়া: রাতারাতি ভাড়া বাড়ানো এবং ফেরিঘাটের পরিষেবা আরও উন্নত করার দাবি নিয়ে সকাল থেকে ফেরিঘাট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করল স্থানীয়রা। নদিয়ার কালনা ফেরিঘাটের ঘটনা।

সূত্রের খবর, বেশ কিছুদিন ধরেই কালনা ফেরিঘাটের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। ফেরিঘাটে টাকা বেআইনিভাবে তুলে তছরুপ করা হচ্ছে এই অভিযোগ তুলে সকাল সাতটা থেকে ব্যস্ততম কালনা ফেরিঘাট বন্ধ রেখেছে স্থানীয়রা। তাঁদের দাবি, অবিলম্বে ভাড়া কমাতে হবে। যতক্ষণ না ভাড়া কমবে ততক্ষণ ফেরিঘাট বন্ধ রেখে এই বিক্ষোভ চলবে। উল্লেখ্য, শান্তিপুর কালনা ফেরিঘাট বর্তমানে কালনা পৌরসভার তত্ত্বাবধানে চলে। টেন্ডারের মাধ্যমে কোন এক ঘাট মালিকদের কাছে ঘাটের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়।

সূত্রের খবর, গত ১৬ ই জুন বর্তমান ঘাট মালিকের মেয়াদ শেষ হলেও বেআইনিভাবে কালনা পৌরসভার চেয়ারম্যান দেবপ্রসাদ বাগ বর্তমান ঘাট মালিক তপন সাহাকে আরও তিন মাস সময় বাড়িয়ে দেয়। তপন সাহা রাতারাতি কোন বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই যাত্রীভাড়া প্রায় দ্বিগুণ করে দেয়। যদিও চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কালনা পৌরসভার চেয়ারম্যান দেবপ্রসাদ বাগ। তাঁর দাবি, রাজ্যের পরিবহণ দফতর থেকেই বাড়তি তিন মাস বর্তমান ঘাট মালিককে লিখিতভাবে দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি তিনি বলেন, যারা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তাঁরা কোন যাত্রী নয়, তাঁরা কোনও না কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত। এখনও ফেরিঘাট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ চলছে বলে জানা গিয়েছে। চরম হয়রানির শিকার হচ্ছেন দূর-দূরান্ত থেকে আসা যাত্রীরা।

(Visited 9 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here