মঞ্চে উঠতে দেরি, তাই ভক্তদের হাতেই হেনস্তার শিকার বাউল শিল্পী

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  গান গাইতে গিয়ে হেনস্থার শিকার হলেন বাউল শিল্পী কার্তিক দাস বাউলকে। ইমন চক্রবর্তী-সহ একাধিক শিল্পী অনুষ্ঠান করতে গিয়েও হেনস্তার শিকার হন। এবার সেই তালিকায় নাম জুড়ল কার্তিকদাস বাউলেরও। সময়ে মঞ্চে উঠতে পারেননি কার্তিক দাস বাউল। আর তাতেই বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা তাঁকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এই ঘটনায় রীতিমতো মর্মাহত শিল্পী। এবার থেকে অনুষ্ঠান করতে যাওয়ার কথা দু’বার ভাববেন বলেই দাবি তাঁর।

বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আগামী ৫ নভেম্বর অনুষ্ঠান করতে যান কার্তিক দাস বাউল। হুগলির গুসকরা থেকে আরামবাগ হয়ে মেদিনীপুর যাওয়ার রাস্তা খারাপ থাকায়ই তাঁর মঞ্চে পৌঁছতে দেরি হয়েছিল বলে জানান কার্তিক দাস বাউল। রাস্তা খারাপ হওয়ার ফলেই গাড়িও খারাপ হয়ে যায় বলে জানান তিনি। আর এই কারণেই অনুষ্ঠানে পৌঁছতে দেরি হয় তাঁর। গাড়ি থেকে নেমে সোজা মঞ্চে উঠে যান কার্তিক দাস বাউল। মঞ্চে উঠেই অনুষ্ঠান দেখার জন্য অপেক্ষারত ছাত্রছাত্রীদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন শিল্পী। অভিযোগ, তা সত্ত্বেও মঞ্চের নীচ থেকে পড়ুয়ারা তাঁকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন শিল্পী। তা সত্ত্বেও প্রায় ঘণ্টাদুয়েক ধরে অনুষ্ঠান করেন কার্তিক দাস বাউল। অনুষ্ঠান বেশ উপভোগ করেন পড়ুয়ারা। তবে অনুষ্ঠান করে বেরনোর সময় তাঁকে বেশ কিছুক্ষণ আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখানো হয় বলেও অভিযোগ। পরে যদিও কয়েকজনের হস্তক্ষেপে তিনি মুক্তি পান।

[আরও পড়ুন: প্রশ্ন বিভ্রাট নিয়ে কৈলাশের নিশানায় মমতা]

দীর্ঘ শিল্পী জীবনে এমন অভিজ্ঞতার সাক্ষী থাকতে হয়নি কার্তিক দাস বাউলকে। শিল্পী বলেন, “শ্রোতাদের গান শোনানোই আমাদের কাজ। তাই ইচ্ছা করে কোনও অনুষ্ঠানে দেরি করে যাই না আমরা। সেই মতো বেশি সময় হাতে নিয়েই মেদিনীপুর রওনা হয়েছিলাম। তা সত্ত্বেও যে রাস্তার মাঝে গাড়ি খারাপ হওয়ায় সময় নষ্ট হবে বুঝতে পারিনি। ছাত্রছাত্রীদের এহেন আচরণে সত্যিই আমার খুব খারাপ লেগেছে।”

(shreyashree)

(Visited 23 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here