মাসিক ঋতুচক্র চলছে? তাহলে খাবেন না এই খাবারগুলো

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: মাসিক ঋতুচক্র সব মহিলার জীবনে এক অতি স্বাভাবিক ঘটনা। তবে এই দিনগুলোতে সকলেরই চাই বাড়তি সতর্কতা। সে সময়ে শরীরে ও পেটে ব্যথা স্বাভাবিক। ভুল খাদ্যাভ্যাস এই সমস্যাকে আরও বাড়িযে দেবে। তাই বিশেষ কযেকটি খাবার এসময়ে বাদ দিয়ে চলাই শ্রেয়।

১। নোনতা খাবার
নুন ব্যতীত কোনও খাবারই ভাবা যায় না। তবে জানেন কি রান্নাতে অতিরিক্ত নুন ব্যবহার শরীরে ফ্লুইডের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। বিশেষ করে পিরিয়ডস চলাকালীন ও তার আগে বেশি করে নুন দেওয়া খাবার খেলে কোমর ব্যথা, পেটে ক্র্যাম্প ধরা, শরীরে ফোলাভাব ইত্যাদি সমস্যা হয়। তাই এই কটা দিন রান্নাতে যতটা পারবেন নুন কম রাখুন।

২। ক্যাফেইন
পিরিয়ডস-এর সময়ে জরায়ুর পেশির সংকোচনের ফলেই পেটব্যথা হয়। কিন্তু তখন ক্যাফেইনসমৃদ্ধ খাবার বেশি খাওয়া হলে জরায়ুর পেশি বেশি বেশি করে সংকুচিত হয়। তার ফলে ব্যথা বাড়ে।

৩। মিষ্টি
পিরিয়ডস-এর সময়ে আমাদের শরীরে চিনির চাহিদা স্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পায়। তবে তা সত্ত্বেও তখন রক্তে শর্করার মাত্রা লেভেলে রাখা উচিত। চিনিযুক্ত খাবার, কোমল পানীয়, জাংকফুড খাবেন না। তার বদলে সামান্য মধু বা গুড় খেতে পারেন।

৪। দুগ্ধজাত খাবার
যাদের ল্যাকটোজেন ইনটলারেন্স রয়েছে, মানে দুধ হজম হতে সমস্যা, তাঁরা পিরিয়ডস-এর সময়ে দুধ বা দুধের তৈরি খাবার যেমন পায়েস, আইসক্রিম ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। এতে স্বাভাবিকভাবেই পেটফাঁপার একটা সমস্যা হয়। এতে অ্যারোকিডোনিক অ্যাসিড নামক ওমেগা ফ্যাটি অ্যাসিড পেটব্যথা ও হজমের সমস্যা তৈরি করতে পারে।

৫। প্রোসেসড ফুড
এমনিতেই চিকিত্সকরা প্রোসেসড ফুড এড়িয়ে চলতে বলছেন। আর পিরিয়ডসের সময়ে তা না খাওয়াই শ্রেয়। প্রোসেসড, ক্যানড বা টিনড ফুডগুলি এই বিশেষ সময়ে ব্যথার প্রবণতা বাড়ায়। এসব খাবারকে বেশিদিন ধরে ফ্লেভারড রাখার জন্য এর মধ্যে অতিরিক্ত পরিমাণে চর্বি, সোডিয়াম আর চিনি মেশানো হয়। আর এগুলো থেকে যে ব্যথা বাড়ে, তা আগেই আমরা বলেছি।

sweta

(Visited 33 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here