বই ধরো, বই পড়ো এই বিষয়ে বিশেষ বৈঠক করলেন গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | August 8, 2019 | 5:24 pm

প্রণব দেবনাথ, কাটোয়া: বৃহস্পতিবার দুপুরে পূর্ব বর্ধমান জেলা মঙ্গলকোট ব্লকের নতুনহাট মিলন পাঠাগারের উদ্যোগে ‘বই ধরো, বই পড়ো’ বিষয়ে বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হল। এই বিশেষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এলাকার বিধায়ক তথা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী, স্টেট সেন্ট্রাল লাইব্রেরীয়ান অভিজিৎ ভৌমিক ও ডেপুটি ডাইরেক্টর তপন বর্মণ।
‘বই ধরো, বই পড়ো’ এই প্রকল্প চালু করেছিলেন গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। উদ্দেশ্য ছিল, সরকারের যে বিভিন্ন লাইব্রেরী রয়েছে সেই লাইব্রেরির পাঠক সংখ্যা বৃদ্ধি করা। এই প্রকল্পের সদস্য হতে গেলে কোন পয়সা লাগে না পাঠকদের। তাই পাঠকরা বিনা পয়সায় সদস্যপদ গ্রহণ করতে পারবেন।
মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী জানান – “গত মার্চ মাসে এই প্রকল্পের উদ্বোধন হয়েছিল। গোটা পশ্চিমবাংলায়। এ প্রকল্পের সাড়া মিলেছে। প্রতিটি লাইব্রেরীতে সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আশা করি এক বছরের মধ্যে সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পেয়ে যাবে”।

নতুনহাট মিলন পাঠাগারের লাইব্রেরীয়ান হাসানাত জামান জানা – “আজ মূলত পূর্ব বর্ধমান জেলার সমস্ত লাইব্রেরিয়ানদের নিয়ে ‘বই ধরো, বই পড়াও’ প্রকল্পের বিভিন্ন সুবিধা অসুবিধা নিয়ে আলোচনা হলএই বৈঠকে। বৈঠক শেষে যা তথ্য পাওয়া গেল তাতে করে প্রতিটি লাইব্রেরীতে প্রচুর পরিমাণ সদস্য সংখ্যা বেড়েছে। এই লাইব্রেরীতে এই তিন মাসে আড়াইশো জন সদস্য সংখ্যা বেড়েছে”।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট