সৌভাগ্য যোজনার বিদ্যুৎ সংযোগে শীর্ষে অসম

সৌভাগ্য যোজনায় ২৪ লক্ষাধিক বিদ্যুৎ সংযোগ উত্তর-পূর্বাঞ্চলে, শীর্ষে অসম

 

আগরতলা: সৌভাগ্য যোজনায় উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ২৪ লক্ষ ৯ হাজার ২৯২টি বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে৷ শুধু অসমেই এই যোজনার অন্তর্গত ১৭ লক্ষ ৪৫ হাজার ১৪৯টি বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে৷ এ-ক্ষেত্রে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের অন্যান্য রাজ্যের তুলনায় অসম যথেষ্ট সুনাম কুড়িয়েছে৷ কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রী লোকসভায় তারকা চিহ্ণবিহীন প্রশ্নের জবাবে এই তথ্য দিয়েছেন৷

তিনি বলেন, ২০১৭ সালের অক্টোবরে সৌভাগ্য যোজনা দেশে চালু হয়েছিল৷ তখন বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে ১৬,২৩০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল৷ মূলত, সারা দেশে প্রচুর বাড়িতে এখনও বিদ্যুৎ সংযোগ পৌঁছেনি৷ তাঁদের বিনামূল্যে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার জন্যই যোজনাটি আনেন প্রধানমন্ত্রী মোদী৷

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানান, সারা দেশে প্রত্যেক বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হলেও রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ে প্রচুর বাড়িঘরে এখনও বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া সম্ভব হয়নি৷ তাঁর কথায়, চলতি বছরের ৩১ মার্চ এই যোজনায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার সময়সীমা উত্তীর্ণ হয়ে গিয়েছে৷ কিন্তু, রাজস্থান ১ লক্ষ ৪৫ হাজার ৫২৮টি এবং ছত্তিশগঢ় ৪০,৩৯৪টি বাড়িতে এখনও বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া সম্ভব হয়নি বলে সংসদে জানিয়েছেন তিনি৷ সে-ক্ষেত্রে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে৷

লোকসভায় কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রী প্রদত্ত তথ্য অনুসারে, ২০১৭ সালের ১১ অক্টোবর থেকে চলতি বছরে ৩১ মার্চ পর্যন্ত উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ২৪ লক্ষ ৯ হাজার ২৯২টি বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে সৌভাগ্য যোজনার অন্তর্গত৷ তার মধ্যে অসমে ১৭ লক্ষ ৪৫ হাজার ১৪৯টি, মেঘালয়ে ১ লক্ষ ৯৯ হাজার ৮৩৯টি, ত্রিপুরায় ১ লক্ষ ৩৯ হাজার ৯০টি, নাগাল্যান্ডে ১ লক্ষ ৩২ হাজার ৫০৭টি, মণিপুরে ১ লক্ষ ২ হাজার ৭৪৮টি, অরুণাচল প্রদেশে ৪৭ হাজার ৮৯টি, মিজোরামে ২৭ হাজার ৯৭০টি এবং সিকিমে ১৪ হাজার ৯০০টি সংযোগ বিদ্যুৎ দেওয়া হয়েছে৷

প্রসঙ্গত, ত্রিপুরায় সৌভাগ্য যোজনা শুরুতে খুব একটা কার্যকর হয়নি৷ কারণ, মোট ১ লক্ষ ৩৯ হাজার ৯০টি বিদ্যুৎ সংযোগের মধ্যে ত্রিপুরায় সরকার পরিবর্তন হওয়ার পর ১ লক্ষ ৩৬ হাজার সংযোগ দেওয়া হয়েছে৷ তাতে প্রমাণিত, ২০১৭ সালে এই যোজনা শুরু হলেও ত্রিপুরায় ২০১৮ সালের ৯ মার্চের পর থেকে প্রকল্প রূপায়ণে গতি পেয়েছে৷

(Visited 2 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here