পশ্চিমবঙ্গ

গুলি করে মারার নিদান, দিলীপের বিরুদ্ধে জোড়া এফআইআর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারীদের গুলি করে মারার নিদান দেওয়ার জের, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে দায়ের করা হল অভিযোগ। হাবড়া টাউন তৃনমূল সভাপতি সীতাংশু দাস হাবড়া থানাতে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ১২ ই জানুয়ারি একটি অনুষ্ঠানে বিজেপির রাজ্য সভাপতি একটি বিশেষ গোষ্ঠীকে ইঙ্গিত করে বলেন যে এনআরসি ও সিএএ এর যারা বিরোধিতা করবে, তাদেরকে গুলি করে মারার নিদান দেন। ফলে সাধারণ মানুষের ভেতর আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। তাই এই দাবীতে হাবড়া থানাতে অভিযোগ দায়ের হয়।

 

অন্যদিকে, রানাঘাট থানায় দিলীপঘোষের হুমকির প্রেক্ষিতে আরেকটি এফআইআর করেছেন কৃষ্ণেন্দু বন্দ্যোপাধ্যায় নামে এক স্থানীয় তৃণমূল নেতা। গত রবিবার নদিয়ায় এক সভা থেকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি বলেছিলেন যে, “যাঁরা হিংসা ছড়িয়েছে গুলি করে মেরেছে বিজেপি সরকার। কুকুরের মতো গুলি করে মেরেছে অসম-উত্তরপ্রদেশ সরকার। এ রাজ্যেও ক্ষমতায় গুলি করব, লাঠি মারব, জেলে ঢুকিয়ে দেব”। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বিক্ষোভে হিংসার ঘটনা সম্পর্কেই এভাবে হুঙ্কার দিয়েছিলেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ।

 

এর পরেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়ো টুইট করে বলেন, “দিলীপদা দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো কথা বলেছেন।” এমনকি বাবুল টুইট করে লিখেছেন, “দিলীপ ঘোষ যা বলেছেন, তার সঙ্গে বিজেপির কোনও সম্পর্ক নেই। তিনি যা বলেছেন, সবটাই তাঁর কল্পনাপ্রসূত।” তিনি আরও লিখেছেন, “উত্তরপ্রদেশ বা অসম- কোথাও এই ধরনের ঘটনা ঘটেনি।”

 

কিন্তু এর পরেও তাঁর অবস্থানে অনড় দিলীপ। সোমবার তিনি বলেন, ‘আমার যা মনে হয়েছে বলেছি, পশ্চিমবঙ্গেও সুযোগ পেলে তা করব।’

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ও নাম না করে দিলীপের মন্তব্যের সমালোচনা করেন। সিপিএম এবং কংগ্রেসেও দিলীপের গুলি-মন্তব্যের নিন্দায় সরব হয়েছে। এফআইআর দায়েরের পর দলের রাজ্য সভাপতির পাশে দাঁড়িয়ে তৃণমূল-সিপিএমকে পাল্টা জবাব দিয়েছ নদিয়ার স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। দলের স্থানীয় এক নেতা বলেছেন, বিরোধীরা অযথা ভ্রান্ত ধারনা ছড়াচ্ছে। দিলীপ ঘোষের হুমকি নিয়ে তৃণমূল নেতার অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

MIJANUR

(Visited 12 times, 1 visits today)

Tags

Related Articles

Back to top button
Close
Close