কোলাডোর গোলে ইস্টবেঙ্গলের কাছে পরাজিত জামসেদপুর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | August 6, 2019 | 5:44 pm

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: পর পর ইস্টবেঙ্গলের ৬ টি গোল, যা জামসেদপুরকে পরাজয়ের দিকে ঠেলে দিল। খেলা শুরুর ৫ মিনিটের মধ্যেই জামসেদপুরের বিরুদ্ধে ১ টি গোল দেয় ইস্টবেঙ্গল। তার পরে খেলা যত গড়াল, গোল সংখ্যা ততই বাড়িয়ে নিল লাল-হলুদ ব্রিগেড। ছ’টি গোল করল ইস্টবেঙ্গল। শুরু করলেন হাইমে কোলাডো। শেষ করলেন বোইথাং। কোলাডো ও বিদ্যাসাগর জোড়া গোল করেন এদিন। ইস্টবেঙ্গল জার্সিতে প্রথম গোল পেলেন পিন্টু মাহাতো।

আলেয়ান্দ্রো মেনেন্দেজের দল হিট। অবশ্য মরসুমের সবে শুরু। আরও অনেক পথ চলা বাকি রয়েছে। উন্নতির আরও সুযোগ রয়েছে ইস্টবেঙ্গলের। এ দিন নিজেদের মাঠে মেনেন্দেজ দেখে নিলেন তাঁর ছেলেদের। ছেলেদের খেলায় যে তিনি সন্তুষ্ট, তা বোঝা গেল বিদ্যাসাগর দলের হয়ে পঞ্চম গোলটা করার পরে। ইস্টবেঙ্গল কোচ আবেগ দেখান না। পঞ্চম গোলটি হওয়ার পরে সতীর্থদের হাই ফাইভ দিলেন। পাঁচ মিনিটের মাথায় জামশেদপুরের গোলকিপার বক্সের ভিতরে ফেলে দেন কোলাডোকে। রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দেন। পেনাল্টি থেকে গোল করে ইস্টবেঙ্গলকে এগিয়ে দেন স্পেনীয় ফুটবলার। তার ঠিক তিন মিনিট পরেই ফের গোল করেন কোলাডো।

এ বার অবশ্য নিখুঁত প্লেসে। অবশ্য দুটি গোলের পরেই কোলাডোকে তুলে নেন মেনেন্দেজ। হাল্কা খোঁড়াচ্ছিলেন তিনি। কোলাডো উঠে গেলেও ইস্টবেঙ্গলকে ফ্যাকাশে দেখায়নি। বরং খেলা যত গড়িয়েছে ততই রং ছড়িয়েছে লাল-হলুদ। নিজেদের মধ্যে বহু পাস খেলেছেন তাঁরা। দুর্বল জামশেদপুরের রক্ষণকে দাঁড় করিয়ে রেখে একের পর এক গোল করে যান ইস্টবেঙ্গলের ফুটবলাররা।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট