বন্যার আশঙ্কা করিমগঞ্জে, আতঙ্কিত এলাকাবাসী

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | July 13, 2019 | 8:01 am

বন্যার আশঙ্কা করিমগঞ্জে, বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে প্রধান তিন নদী কুশিয়ারা, লঙ্গাই, সিংলা

 

করিমগঞ্জ (অসম): বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে করিমগঞ্জের প্রধান তিন নদী কুশিয়ারা, লঙ্গাই ও সিংলা। বন্যার আশঙ্কায় আতঙ্কিত জনতা। গত তিন চার দিন থেকে মণিপুর ও মিজোরামে ধারা বৃষ্টিপাতের ফলে জেলার এই প্রধান তিন নদী ফুঁসে উঠেছে। জেলা প্রশাসন ইতিমধ্যেু বন্যা মোকাবিলায় সব ধরনের সতর্কতামূলক ব্যযবস্থা গ্রহণ করেছে, জানিয়েছেন অতিরিক্ত জেলাশাসক রঞ্জিত কুমার লস্কর। তিনি জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্ভাব্য বন্যার পরিপ্রেক্ষিতে উদ্ধারকার্যকেই প্রাথমিকতা দেওয়া হয়েছে।

পাহাড়ি অববাহিকার জল সমতলে নেমে আসায় জেলায় বন্যাির পদধ্বনি শোনা যাচ্ছে। শুক্রবার সন্ধ্যাহ পর্যন্ত সিংলা নদীর জল বিপদসীমার প্রায় দেড় মিটার উপর দিয়ে ব‌ইছে। সিংলা নদীর জল বিপদসীমা ১৭.৯৮ মিটার অতিক্রম করে ১৯.৬১ মিটার উপর দিয়ে ব‌ইছে। লঙ্গাই নদীর জল বিপদসীমা ২৮.০০ মিটার অতিক্রম করে ২৮.৮৮ মিটার এবং কুশিয়ারা নদীর জল বিপদসীমা ১৪.৯৪ মিটার অতিক্রম করে ১৫.৪১ মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পাহাড়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সমতল এলাকায়‌ও ধারা বর্ষণের ফলে নদীগুলি দ্রুত ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করতে চলছে।

কৃষিপ্রধান করিমগঞ্জ জেলায় প্রায় ৫,৫০০ হেক্টর কৃষি জমি। বর্তমানে কৃষকরা শাইল ধানের হালি চারা রোপণ করেছেন। বন্যা র আশঙ্কায় কৃষকদের মাথায় হাত পড়েছে। বন্যানর কবলে পড়ে শাইল ধানের হালি চারা নষ্ট হয়ে গেলে, কৃষকদের সর্বনাশ হয়ে যাবে। পুনরায় হালি চারা লাগানোর মতো সময় ও সুযোগ কোনওটাই থাকবে না তাঁদের হাতে। অন্যয়দিকে রবিশস্য নষ্ট হয়ে যাওয়ার‌ও প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। এই মরশুমে মাছের পোনা চাষের‌ও উৎকৃষ্ট সময়। তাই বন্যা র পদধ্বনিতে কৃষকদের জন্যর এক অশনি সংকেত।

সর্বনাশা বন্যা  জেলার কৃষকদের ফসল গ্রাস করে নিলে কৃষকরা পথে বসতে বাধ্যয হবেন। করিমগঞ্জ জেলার কৃষকদের প্রতি বছর সর্বগ্রাসী বন্যারর মোকাবিলা করতে হয়। এতে কৃষকদের অর্থনৈতিক অবস্থা অত্যরন্ত বেহাল হয়ে পড়ে। প্রতি বছর রবিশস্য উৎপাদনের জন্য  কৃষকরা ব্যা ঙ্ক থেকে ঋণ নিয়ে থাকেন। কিন্তু বন্যা র কবলে পড়ে তাঁদের সর্বস্ব খোয়ানোর আতঙ্ক তাড়া করছে। সবমিলিয়ে জেলার তিনটি নদীর প্রবল জলস্ফিতি সাধারণ জনমনে ভয়ানক আতঙ্কের সৃষ্টি করছে।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *