সপ্তাহন্তেই করুন বাড়ির সমস্ত সাফাই

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  এখন চারিদিকেই নিউক্লিয়ার ফ্যামিলির ছড়াছড়ি এবং অধিকাংশ বাড়িতে সকলেই কর্মরত| ফলে সপ্তাহের কাজের দিনগুলোতে বাড়ি পরিষ্কার এক কথায় অসম্ভব হয়ে ওঠে| আর তার জেরেই পুরো চাপটা এসে পড়ে সপ্তাহান্তে| তবে সপ্তাহের শেষে যদি একটা বা দুটো দিনের ছুটি পাওয়া যায়, তাহলে সময়ের সদ্ব্যবহার করে তা বাড়ি পরিষ্কারের কাজে লাগানো যেতেই পারে| আর একটু প্ল্যান করে চললে তো পুরো সপ্তাহের অনেক কাজই এগিযে রাখা যায়।

১) কী কী কিনতে হবে তার একটা লিস্ট বানান

প্রতিদিন আপনার বা আপনাদের পক্ষে মুদি দোকানে গিয়ে জিনিসপত্র কেনা সম্ভব নয়| তাই শুক্রবারের মধ্যেই ঘরের জিনিস কী কী খালি হয়ে গেছে শনি-রবিবারের মধ্যে সেগুলি কিনে রাখুন| বিশেষ করে শনিবার বিকেলেই যদি কিনে রাখতে পারেন, তাহলে পুরো রবিবারটা বাড়ি পরিষ্কারের জন্য আপনি বরাদ্দ রাখতে পারেন|

২) বেডকভার ও পর্দা পাল্টান

বাড়িতে, বিশেষ করে ঘুম থেকে ওঠার পরই আমাদের চোখ চলে যায় চারপাশে| তাই ঘরের প্রতিটি কোণাই রাখুন পরিচ্ছন্ন| রবিবার বা যেদিন আপনার ডে অফ সেদিন সকালে উঠেই বিছানার চাদর, বালিশের কভার, কুশন কভার, পর্দা বদলে দিন| এতে একদিকে  যেমন ঘরে একটা ফ্রেশ লুক আসবে, তেমনই ধুলো বালি থেকে যদি কারও অ্যালার্জি থাকে (মানে ডাস্ট অ্যালার্জি), তাহলে বেশিদিন একই বিছানার চাদর বা পিলো কভারে শোয়া উচিত  নয়|

৩) ধুলো ঝাড়াটাও দরকার

কাজের দিনে বেরোনোর তাড়াহুড়োতে আমাদের অনেকেরই হয়তো রোজ ডাস্টিং করা সম্ভব হয় না| তাই চাদর বা কভারগুলো বদলানোর আগে পুরো বাড়ির ঝুল, ময়লা, ধুলো যতটা পারবেন ঝেড়ে নিন| বিশেষ করে আলমারির মাথা, টেবিলের উপর, ফ্রিজের উপরের অংশটা, কাবার্ডের ভিতরের অংশ ইত্যাদি| আর ধুলোতে অ্যালার্জি থাকলে নাকে মাস্ক লাগাতে ভুলবেন না|

৪) রান্নাঘরকেও বাদ দেবেন না

রান্নাঘর আর বাথরুম, অনেকের বাড়িতেই এই দুটো সবথেকে বেশি অবহেলিত থাকে| তাই রান্নাঘরের কৌটো ও বাসনগুলো কিছুটা সরিয়ে পাল্টে পাল্টে রাখুন| খাবারের তাকে আরশোলা বা মাকড়সা যাতে বাসা করতে না পারে, সেজন্য সমস্ত কৌটো বের করে ভালো করে মুছুন| সম্ভাব্য স্থানগুলোতে আরশোলা মারার স্প্রে ব্যবহার করুন| কৌটো খালি হয়ে গেলে ভালো করে ধুয়ে পুরো না শুকিয়ে তাতে জিনিস ভরবেন না|

৫) অবশেষে বাথরুম

মাসে অন্তত একটা উইকএন্ডে বাথরুম, রান্নাঘরের এগজস্ট ও ইলেকট্রিক চিমনির সার্ভিসিং করান| তবে বাথরুমের ফ্লোর আর টাইলসের পরিষ্কারটা প্রতি একদিন অন্তর করতে পারলেই ভালো| ওটা উইকএন্ডের জন্য রেখে দেবেন না| বাড়ি পরিষ্কার ও রুচি সম্মতভাবে সাজানোর পাশাপাশি হাইজিন মেন্টেন করাটাও জরুরি|

(shreyashree)

 

(Visited 16 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here