টোটো দেওয়ার নাম করে মোটা টাকা আত্মসাৎ, বিতর্কে দেবশ্রী রায়

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক; রায়দিঘির বাসিন্দাদের সুবিধার্থে টোটো দেবেন বলে মোটা অঙ্কের টাকা তুলেছিলেন অভিনেত্রী বিধায়ক দেবশ্রী রায়। উদ্দেশ্য ছিল বেকার যুবকদের স্বাবলম্বী করে তোলা। কিন্তু তা আর হল কই, ৮০ লক্ষ টাকা তুলে বেপাত্তা সাংসদ। এমনকী, প্রতিশ্রুতি পূরণ করা তো দূরের কথা, টাকা তোলার পর আর ওমুখোই হননি দেবশ্রী রায়। এমনটাই অভিযোগ রায়দিঘির বাসিন্দাদের। বর্তমানে দেবশ্রী বিরোধী পোস্টারে ছেয়ে গিয়েছে গোটা রায়দিঘি।

রায়দিঘির বাসিন্দাদের অভিযোগ, চলতি বছরের গোড়ার দিকে গ্রামবাসীদের টোটো দেওয়ার জন্য দলের সকলকে নিয়ে বৈঠক করেছিলেন সাংসদ দেবশ্রী। দুঃস্থদের টোটো দেওয়ার নাম করে নিজের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার দ্বারা লক্ষ লক্ষ টাকা তুলেছিলেন দেবশ্রী রায়। যারা টোটো নিতে ইচ্ছুক, তাদের ৪ হাজার টাকা করে জমা দিয়ে রেজিস্ট্রি করতে বলেছিলেন তিনি। দফায় দফায় টাকা তুলে বিপুল পরিমাণ অঙ্কের টাকা নেওয়া হয়, যাদের মধ্যে কেউ রশিদ পেয়েছে আবার কেউ পাননি। কারও কাছ থেকে আবার ১০ হাজারের উপরও টাকা নেওয়া হয়েছে। তারপর থেকেই বেপাত্তা সাংসদ দেবশ্রী রায়। ফোনে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন রায়দিঘির বাসিন্দারা। অবশেষে সারা রায়দিঘি জুড়ে দেবশ্রী বিরোধী পোস্টার লাগিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সেখানকার বাসিন্দারা।

কিন্তু সেই টাকা নেওয়ার পর তিনি আর রায়দিঘিতে পা রাখেননি। যার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। ‘টোটো দাও নাহলে টাকা ফেরত দাও’, এই স্লোগান লিখেই পোস্টার ছেয়ে গিয়েছে দেবশ্রীর সংসদীয় এলাকায়। স্থানীয় তৃণমূল দলের তরফেও ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যে। অন্যদিকে, ৮০ লক্ষ টাকা আর্থিক দুর্নীতির জন্য দেবশ্রী রায়ের বিরুদ্ধে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি করেছেন সিপিএম নেতা তথা পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মন্ত্রী কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়।

@স্বর্ণার্ক ঘোষ

 

(Visited 43 times, 1 visits today)

3 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here