নরেন্দ্রপুরে ফের দেহ উদ্ধার, এলাকায় আতঙ্ক

হরিপদ মণ্ডল, নরেন্দ্রপুর: একের পর এক খুনের ঘটনা ঘটে চলেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার নরেন্দ্রপুর থানা এলাকায়। কয়েকদিন আগে নরেন্দ্রপুরের খেয়াদহ ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত তিউরিয়ায় একটি বাগান বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছিল জোড়া মৃতদেহ। সেই ঘটনার তদন্ত করে এখনো পুলিশ কাউকে আটক বা গ্রেফতার করতে পারেনি। এরই মধ্যে শুক্রবার রাতে কুসুম্বা এলাকায় বন্ধ ঘর থেকে এক গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। আর এবার নরেন্দ্রপুরের খড়কি এলাকার একটি খাল থেকে উদ্ধার হল অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির মৃতদেহ। তিন টুকরো করে দেহটি প্লাস্টিকে ভরে খালে ফেলে দেওয়া হয়েছিল।

রবিবার সকালে এলাকার মানুষজন খাল থেকে পচা গন্ধ বের হতে দেখে সেখানে লক্ষ্য করেন একটি মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। সাথে সাথেই তারা নরেন্দ্রপুর থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে। উদ্ধারের সময় দেখা যায় দেহটি তিনটে টুকরোতে খণ্ডিত। তা দেখেই পুলিশের প্রাথমিক অনুমান খুন করা হয়েছে ঐ ব্যক্তিকে। তবে এই ব্যক্তি স্থানীয় নয় বলেই দাবী করছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। দেহে পচন ধরার কারণে সেভাবে শনাক্ত করা না গেলেও ঐ ব্যক্তির নাম পরিচয় জানার চেষ্টা করছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। পুলিশের আরও অনুমান বাইরে থেকে খুন করে দেহ এই খালে ফেলে পালিয়েছে দুষ্কৃতীরা। দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। এলাকায় পর পর খুনের ঘটনায় যথেষ্ট আতঙ্কিত মানুষজন। ঘটনার পিছনে কে বা কারা জড়িত সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। এ বিষয়ে এলাকার মানুষকে জিজ্ঞাসাবাদ ও করা হচ্ছে। পাশাপাশি ঘটনার তদন্তের জন্য পুলিশ কুকুর আনা হয়েছে। এ বিষয়ে বারুইপুর পুলিশ জেলার এসপি রশিদ মুনির খান বলেন, “প্রাথমিক তদন্তে এটা খুন বলেই মনে হচ্ছে। বাইরে থেকে খুন করে দেহ এনে এই খালে ফেলে দিয়ে গেছে দুষ্কৃতীরা। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে”।

(Visited 1 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here