Slideপশ্চিমবঙ্গ

দুর্গাপুরে বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা, আহত ৪

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর: জনসভার আগের দিন মিছিল শেষে বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা। বাড়ি ভাঙচুর , মারধরের হাত থেকে রেয়াত পেল না আরএসএসের সেবাকর্মীরা। ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ উঠল স্বনির্ভর গোষ্ঠীর ইমিটেশনের দোকানে। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাপুর ১ নং ওয়ার্ড কমলপুরে।
ঘটনায় আহত হয়েছে ৪ জন। দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে নালিশ জানাতে রক্তাত্ব অবস্থায় চিন্তন শিবিরে হাজির আহতরা। ঘটনাকে ঘিরে চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন।
উল্লেখ্য, গত ১০ আগষ্ট থেকে দুর্গাপুর সিটি সেন্টারে বিজেপির চিন্তন শিবির শুরু হয়েছে। রবিবার চিন্তন শিবিরের পর গান্ধীমোড় ময়দানে ছিল জনসভা। ওই জনসভার সমর্থনে শহর জুড়ে বিভিন্ন ওয়ার্ডে মিটিং মিছিল শুরু করেছে বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা। এদিন কমলপুরে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা মিছিল শেষে বৈঠকের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। অভিযোগ ওই সময় রাতে একদল তৃণমূলকর্মী লাঠি রড নিয়ে হামলা চালায়। মারধর করে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের। ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছেন চারজন। আহতদের মধ্যে রয়েছে নীতিশ নায়েক, সমীর মজুরী, সুনীল কিষ্কু ও প্রসেঞ্জিত ঘোষ।
এদিন রাতে আহতরা রক্তাত্ব অবস্থায় সিটি সেন্টারে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের চিন্তন শিবিরে হাজির হন। আহতরা জানান,” কমলপুর বাসস্ট্যান্ডের পিছনে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে গরীব দুঃস্থ পড়ুয়াদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। তার পাশে একটি ঘরে বৈঠক করার সিদ্ধান্ত ছিল। মিছিল শেষ হতেই ৩০-৩৫ জন তৃণমূল কর্মী চড়াও হয়। লাঠি রড নিয়ে এলোপাথাড়ি মারধর শুরু করে। ভাঙচুর চালায় আমাদের বাড়িতেও। সেবা কার্যালয়ের পাশে একটি স্বনির্ভর গোষ্ঠীর ইমিটেশন দোকানের পোস্টার, ব্যানারে ভাঙচুর করে।”
ঘটনায় গুরুতর জখম হয় ৪ জন। যার মধ্যে দুজনের মাথা ফেটে যায়। আহতদের প্রথমে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে দুর্গাপুরের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। আহতদের মধ্যে নীতেশ নায়েক রক্তাত্ব অবস্থায় চিন্তন শিবিরে চলে আসেন। সেখানে দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে তৃণমূলের অত্যাচারের শিকারের কথা জানান তিনি। রক্তাত্ব কর্মীকে দেখে বিজেপির রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসু হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন।
অন্যদিকে দুর্গাপুর পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলার শিপ্রা সরকার অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, ” বিজেপি কর্মীরা মদ্যপ অবস্থায় রাস্তায় গালিগালাজ করছিল। অশালীন আচরণ করছিল। তার প্রতিবাদ করতেই বিজেপি কর্মীরা আমাদের কর্মীদের মারধর করে। পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালায়।”
এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দুর্গাপুর থানার পুলিশ।

(Visited 7 times, 1 visits today)

Tags

Related Articles

Back to top button
Close
Close