পার্থর বাড়ীতে বৈশাখী, গ্রহণ হলো না ইস্তফা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গৃহীত হলো না বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়-এর ইস্তফা। অপমানের জ্বালা সইতে না পেরে ঘোষণা করেছিলেন পদত্যাগের। সেই মতোই শুক্রবার মিল্লি আল আমিন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষা বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ইস্তফা দিতে এসেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে। এমনটা যে করবেন সেটা অবশ্য আগেই জানিয়েছিলেন তিনি। নীল শাড়ি পড়ে কাল মার্সিডিজ গাড়িতে চড়ে তিনি সরাসরি শিক্ষামন্ত্রীর বাড়িতে ঢুকে যান। কিছু সময় প্রতীক্ষা, তারপরই শিক্ষামন্ত্রীর বাড়ি থেকে বেরিয়ে এলেন বৈশাখী। বেরিয়ে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, শিক্ষামন্ত্রীর কাছে নিজের পদত্যাগ জমা দিতে এসেছিলেন। কিন্তু শিক্ষামন্ত্রী তাঁর পদত্যাগপত্র গ্রহণই করেননি। তবে তিনি যে আর কলেজে ফিরছেন না সে কথা সাফ জানিয়ে দেন।

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের পরে বৈশাখী জানান, নিজের পদত্যাগ পত্রে তিনি একগুচ্ছ অভিযোগ জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রীকে। ধর্মীয় কারণে তাঁকে হয়রানি করা এবং কলেজের নানা দুর্নীতিরও অভিযোগ আনা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। সেসব বিষয়ে তিনি লিখিত আকারে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী কে। তিনি আরও বলেন, শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় তাঁর ইস্তফা গ্রহণে রাজি না হলেও তিনি এই ব্যাপারে অনড়। তিনি পদত্যাগ পত্র রাজ্যপালকেও পাঠাবেন বলে জানিয়েছেন। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, শিক্ষামন্ত্রী একটি উচ্চপর্যায় তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন। সেই কারণেই এখন তাঁর ইস্তফা তিনি গ্রহণ না করে তদন্ত ও তার ফলাফল পর্যন্ত অপেক্ষা করার আনুরোধ করেছেন। যদিও মিল্লি আল আমিন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষা বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় আর কলেজে যাবেন না বলে বুধবারের সাংবাদিক সম্মেলন করে সেই কথা জানিয়েছিলেন।তা বলতে গিয়ে তিনি রীতিমত কেঁদেও ফেলেন।

(Visited 10 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here