১১ই আগষ্ট মহান বলিদান দিবস

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  আগামী ১১ই আগষ্ট মহান বলিদান দিবস। বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুর ১১২তম প্রয়াণ দিবস। ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের প্রথম শহিদ বলা যায়। অবশ্য তার কয়েক মাস আগে অর্থাৎ ১৯০৮ র মে মাসে পুলিশের হাতে ধরা পড়ার আগেই নিজ রিভলবার দিয়ে ক্ষুদিরাম বসুর সাথী প্রফুল্ল চাকী মাথায় গুলি করে আত্মঘাতী হন। দুর্ভাগ্যজনক ভাবে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে যান ক্ষুদিরাম বসু, পরবর্তীতে বিচারে কূট,অত্যাচারি ইংরেজ প্রশাসনের বিচারে তাঁর ফাঁসি হয় ১৯০৮ এর ১১ই আগষ্ট মাত্র ১৮ বছর আট মাস আট দিনের মাথায়। ফাসির  আগে তাঁর শেষ ইচ্ছা অর্থাৎ তাঁর মাতৃসমা দিদি অপরূপাকে, যিনি ক্ষুদের বদলে মা র থেকে কিনে নিয়েছিল তাকে একটা বিশেষ কারণে, শেষ দেখা দেখতে চেয়েছিলেন।কূট, ধূর্ত, অত্যাচারি ইংরেজ সেই সুযোগটাও দেয়নি মৃত্যু পথযাত্রী এক ভারতীয় বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুকে।এই রকম অনেক অনেক অত্যাচার, ঘৃণার বিবরণ আছে ইতিহাসের পাতায়কূট ইংরেজদের ১৯০ বছর অন্যায়ভাবে ভারত শাসনের।

ক্ষুদিরাম বসু হাসিমুখেই ফাঁসির দড়ি গলায় পড়েছিল, কোনো ধরনের ক্ষমাভিক্ষা চান নি বিচারপতি র কাছে, এনিয়ে যদিও কিছু কিছু অমানুষ অপব‍্যখা করে, ঠাট্টা করে। ধিক্কার জানাই তাদের। ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে ছোট্ট এই বালক প্রেরণা পেয়েছিলেন অরবিন্দ ঘোষ, ভগনি নিবেদিতা, বারীণ ঘোষ ও আরও অনেকেরই কাছে।  পন্ডিত বিদ্যাসাগর, মহীয়সী মাতঙিণী হাজরার জন্মস্থান মেদিনীপুরের পবিত্র মাটিতে জন্ম ভারতমাতার আর এক কৃতিসন্তানক্ষুদিরাম বসুর জন্ম ১৮৯৮ র ৩ রা ডিসেম্বর পিতা ত্রৈলোক্যনাথ ও মাতা লক্ষীপ্রিয়াদেবীর ঘরে।  ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের শহিদ তথা বীর বিপ্লবী ও তাদের পিতা মাতাদের সরণ করে আভূমি প্রাণাম জানাই। আমাদের প্রতি প্রত্যেকেরই উচিত শহিদ তথা বীর দের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া,এই প্রজন্মের কাছে তাদের ত্যাগ, তিতিক্ষা , বীরত্বের কথা তুলে ধরা সময়ে সময়ে। ধন্যবাদ সহ সজল কুমার গুহ ,শিবমন্দির।

 

(Visited 16 times, 2 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here