আপাতত ৫৩৭৮ জন ত্রিপুরায় আশ্রিত শরণার্থী‌র মিজোরামে প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত

আগরতলা: অবশেষে ত্রিপুরায় আশ্রিত রিয়াং শরণার্থীদের প্রত্যাবর্তন প্রক্রিয়া পাকাপাকিভাবে শুরু হতে চলেছে। কারণ, উত্তর জেলার কাঞ্চনপুর এবং দামছড়ায় বহু বছর ধরে অবস্থানরত ৫,৩৭৮ জন শরনার্থীকে মিজোরামে ফিরে যেতে চূড়ান্ত সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তাদের কাগজপত্র খতিয়ে দেখে মিজোরামের বাসিন্দা বলেই প্রমান মিলেছে। তাই, তাদের মিজোরামে প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবর মাসের মধ্যে সমস্ত শরণার্থীকে নিজ রাজ্যে ফিরে যাওয়ার আদেশ আগেই দিয়েছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। এখন ওই ৫,৩৭৮ জন শরণার্থীদের শনাক্ত করা হয়েছে। তারা মিজোরামের বাসিন্দা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের পক্ষ থেকে আগেই জানা‌নো হয়েছে, ত্রিপুরায় আশ্রিত শরণার্থীরা মিজোরামে ফিরে গেলে নিজ রাজ্যে তারা সব ধরনের সরকারি সুযোগ সুবিধা পাবেন। প্রত্যেক শরণার্থী পরিবারকে দুই বছর পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন সামগ্রী ও প্রতি মাসে পাঁচ হাজার টাকা করে আর্থিক সাহায্যও প্রদান করবে কেন্দ্রীয় সরকার।

সম্প্রতি, উত্তর ত্রিপুরা জেলায় কাঞ্চনপুর ও পানিসাগরে শরণার্থী শিবিরে তাদের মিজোরামের বাসিন্দা হওয়ার প্রমাণ খতিয়ে দেখছেন মিজোরাম সরকারের প্রতিনিধিরা। গত ৩ জুলাই থেকে এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ২০ জুলাই পর্যন্ত চলবে এই প্রক্রিয়া। উত্তর ত্রিপুরা জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক জানিয়েছেন, ৫,৩৭৮ জন শরণার্থী আগেই মিজোরামের বাসিন্দা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন। তাই, তাদের প্রত্যাবর্তন নিশ্চিত বলে স্থির হয়েছে। বাকিদের প্রামাণিক তথ্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তারাও মিজোরামের বাসিন্দা হিসেবেই প্রমাণিত হবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *