দেশে বলিষ্ঠ সরকার আসার পরই ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়া হয়েছে :বাবুল সুপ্রিয়

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | August 12, 2019 | 11:34 am

তাপস মণ্ডল, হুগলি: আমরা সবাই ভারতীয়। ভারতের মধ্যে একটা রাজ্যকে কেনো আলাদা করে রাখা হবে। রবিবার সন্ধ্যায় চুঁচুড়ায় ভারত মাতার উদ্বোধনে এসে একথাই বললেন, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এদিন সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, বাইরে থেকে জমি কিনে যদি কাশ্মীরে কেউ ব্যবসা করে। তবে সেখানকার মানুষ কাজ পাবে। আর কাজ পেলেই সন্ত্রাসবাদীরা পাকিস্তানের মদতে সামান্য পয়সার বিনিময়ে কাশ্মীরিদের দিয়ে পাথর ছোঁড়াতে পারবে না। সেজন্যই দীর্ঘদিন ধরেই আমরা কাশ্মীরে ৩৭০ ধারার বিরোধী। আর এবারে জনতার রায়ে দেশে একটি বলিষ্ঠ সরকার হওয়ায় পরই আমরা ৩৭০ ধারা তুলে দিলাম। ভূস্বর্গ এবার আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হচ্ছে।
এদিন চুঁচুড়ার সায়েরের মোড়ে ভারতমাতা সেবা সমিতির উদ্যোগে আয়োজিত ভারতমাতার পুজোতে উপস্থিত হন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ও হুগলির সাংসদ লকেট চ্যাটার্জী। দু’জনকে দেখতেই এদিন ভিড় উপচে পরে সায়েরার মোড়ে। মঞ্চে উঠেই কয়েক কলি গেয়ে জনতার হাততালি কুড়োন বিজেপির এই গায়ক সাংসদ।
মুখ্যমন্ত্রীর করমুক্ত পুজোর দাবিতে আন্দোলনে নামা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, পুজোটা তৃণমূলের নয়। দূর্গাপুজো আপামর বাঙালীর। কিছু কিছু পুজোতে কাটমানি ব্যবহার হতো। সারদার কোটি কোটি টাকায় পুজো হত। অথচ পয়সার অভাবে রাস্তাঘাট ভাঙা থাকতো। সেসব এখন বন্ধ হবে। অন্যদিকে আজ দূর্গাপুরে বিজেপির গোষ্ঠীকোন্দল নিয়ে বাবুল সুপ্রিয়র বক্তব্য, ওসব ছোটখাটো ব্যাপার আর সেখানে কোন গেরুয়া চেয়ার ছোড়া হয়নি। ছোড়া হয়েছে লাল চেয়ার। যদি দু’একটা লাল চেয়ার ভাঙা ভালো।

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট