Lead Newsদেশ

পুলওয়ামা হামলার নেপথ্যে দেবেন্দ্র সিংহ? অধীরের মন্তব্যে উত্তপ্ত ভারতীয় রাজনীতি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্কঃ জঙ্গিদের সাহায্যের অভিযোগে ডিএসপি দেবেন্দ্র সিংহের গ্রেফতারির ঘটনায় উত্তপ্ত ভারতীয় রাজনীতি। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এদিন মুখ খুললেন সংসদের বিরোধী দলনেতা তথা কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরীর মন্তব্যে তৈরি হল বিতর্ক৷ মঙ্গলবার অধীর বললেন, ‘পদবী খান হলে আরএসএস গর্জে উঠত৷

আরএসএস-র ট্রোল আর্মি গর্জে উঠত৷’ পুলওয়ামা হামলার নেপথ্যে কাদের হাত রয়েছে, সেই প্রশ্নও তোলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা৷ বিজেপি-র পাল্টা আক্রমণ, পাকিস্তানকে বারবার ক্লিনচিট দিচ্ছে কংগ্রেস৷


পুলিশের সূত্র খবর, ২০১৮ সালে অ্যান্টি-হাইজ্যাকিং ইউনিট থেকে সরিয়ে শ্রীনগর বিমানবন্দরে পোস্ট করা হয় দেবেন্দ্র সিংকে৷ তিনি ছিলেন দার জেলার ডিএসপি৷ স্পেশাল অপারেশনস গ্রুপের সদস্য ছিলেন না৷ এই গ্রুপ জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের কাউন্টার ইনসার্জেন্সি ইউনিট৷

অধীর আরও বলেন, ‘কাশ্মীর উপত্যকায় অস্ত্রধারীদের রক্ষা কবজ ফাঁস হয়ে গিয়েছে৷ যদি দেবেন্দ্র সিং না হয়ে খান হত, তা হলে গর্জে উঠত আরএসএস-এর ট্রোল আর্মি৷ আমাদের দেশের শত্রুদের কোনও রং, জাত ও ধর্ম দেখা হবে না৷ আসলে পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হামলার জন্য একটি নতুন মুখ দরকার ছিল৷ দেবেন্দ্র সিংয়ের নামও অভিযুক্তদের তালিকায় যুক্ত করা উচিত৷ বিচার বিভাগীয় তদন্ত হওয়া দরকার৷’

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত শনিবার দুই জঙ্গি এবং তাদের এক সাহায্যকারীকে নিজের গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়ার সময় গ্রেফতার হন জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের ডিএসপি। সেই গাড়ি থেকেই পাঁচটি গ্রেনেড উদ্ধার হয়। ডিএসপির বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে মেলে একাধিক একে-৪৭ সিরিজের রাইফেল ও প্রচুর নগদ টাকা।

এরপর,  জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো (আইবি), গুপ্তচর সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালিসিস উইং (র), সেনা গোয়েন্দা বা মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স সহ বিভিন্ন সংস্থা তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়ে যাচ্ছে। জঙ্গিদের নিজের গাড়িতে নিয়ে যাওয়া, নিজের বাড়িতে আশ্রয় দেওয়া এবং তাদের কাছ থেকে ১২ লাখ টাকা নেওয়ার কথা দেবেন্দ্র স্বীকার করে নিয়েছেন বলে দাবি গোয়েন্দাদের।

গতবছর ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, জম্মু ও কাশ্মীরে সেনা কনভয়ে আত্মঘাতী একটি হামলার ঘটনায় মৃত্যু হয় প্রায় ৪০ এর বেশি সেনা জওয়ানের। এই ঘটনার নেপথ্যে পাক জঙ্গি সংগঠন জঈশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারের হাত রয়েছে বলে দাবি করে কেন্দ্র সরকার। এরপর পাকিস্তানের বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক চালায়  ভারতীয় বিমান বাহিনী।

 

@স্বর্ণার্ক ঘোষ

 

 

(Visited 19 times, 1 visits today)

Tags

Related Articles

Back to top button
Close
Close