বাংলাদেশের ১০ জেলা বন্যা কবলিত, বজ্রপাত ও পাহাড় ধসে নিহত ১৮

বাংলাদেশের ১০ জেলা বন্যা কবলিত, বজ্রপাত ও পাহাড় ধসে নিহত ১৮

ঢাকা: প্রবল বর্ষণ আর উজানের পাহাড়ি ঢলে ব্রহ্মপুত্র,তিস্তা ও কুশিয়ারা, খোয়াই, সোমেশ্বরী, কংস, ও সাঙ্গুসহ বিভিন্ন নদ-নদীর জল বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় বাংলাদেশের ১০ জেলায় বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি হয়েছে। আগামী ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টায় আরও অন্তত ৩টি জেলা বন্যা আক্রান্ত হতে পারে। বৃষ্টি অব্যাহত থাকলে আগামী সপ্তাহের শেষ নাগাদ বানের জলে প্লাবিত হতে পারে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জের নিম্নাঞ্চল।

শনিবার টানা বর্ষণের মধ্যে বজ্রপাত ও পাহাড় ধসে ১৮ জন নিহত হয়েছে। ময়মনসিংহ, পাবনা, চুয়াডাঙ্গা, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোণা, কিশোরগঞ্জ ও শরীয়তপুরে বজ্রপাতে দুই শিশুসহ ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে শিশুসহ আরও দুইজন। পার্বত্য জেলা রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধসে চলন্ত অটোরিকশা চাপা পড়ে দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন।

এদিকে বন্যা কবলিত জেলাগুলোতে জলবন্দি হয়ে পড়েছেন লাখো মানুষ। ডুবে গেছে গ্রামীণ সড়ক, ক্ষেতের ফসল। ভেসে গেছে মাছের খামার। বিভিন্ন স্কুলে পাঠদান বন্ধ হয়ে পড়েছে। এতে নিদারুণ দুর্ভোগে দিন কাটছে বানভাসী মানুষের।

ইতিমধ্যে লালমনিরহাট, নীলফামারী, গাইবান্ধা, বগুড়া, নেত্রকোনা, সিলেট, সুনামগঞ্জ, চট্টগ্রাম, বান্দরবান, কক্সবাজার জেলায় বন্যা পরিস্থির অবনতি হয়েছে। আগামী ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টায় জামালপুর, সিরাজগঞ্জ এবং মানিকগঞ্জে বন্যা বিস্তৃত হতে পারে।

বুয়েটের পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা ইন্সটিটিউটের অধ্যাপক ড. একেএম সাইফুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশে এ মুহূর্তে একটি মাঝারি ধরনের বন্যা চলছে। ইতিমধ্যে মেঘনা এবং ব্রহ্মপুত্র অববাহিকা সক্রিয় হয়েছে। সাধারণত এ দুই অববাহিকা একসঙ্গে সক্রিয় হলে ২৪-২৫টি জেলা বন্যায় আক্রান্ত হয়। তাই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে বড় বন্যা হয় উল্লিখিত দুই অববাহিকার সঙ্গে গঙ্গা-পদ্মা অববাহিকা সক্রিয় হলে। ভারতের বিহারে এবং নেপালে বন্যা হচ্ছে। এর কারণে গঙ্গায় জল বাড়ছে। পদ্মায়ও প্রবাহ বাড়বে। কিন্তু এ বন্যার জল বাংলাদেশকে আক্রান্ত কতটা করবে সেটার জন্য আরও দুই-আড়াই সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে। যদি গঙ্গা-পদ্মায়ও বন্যা হয় তাহলে বাংলাদেশে বড় বন্যা হতে পারে। তবে আমি এখন পর্যন্ত তেমন আশঙ্কা দেখছি না।

(Visited 13 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here