নাবালিকার বিয়ে রুখল প্রশাসন

আবারও নাবালিকার বিয়ে আটকাল পুলিশ প্রশাসন ও চাইল্ড লাইনের আধিকারিকরা

উওর ২৪ পরগণা: বিয়ে বাড়ি সাজো সাজো রব, এমন সময় চাইল্ড লাইনের তৎপরতায় হাসনাবাদ ব্লক প্রশাসনের উদ্যোগে কাটাখালি হাই মাদ্রাসার ছাত্রী রুকসানা খাতুনের বিয়ে রুখে দেওয়া হল। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কন্যাশ্রী প্রকল্পের একগুচ্ছ সুযোগ সুবিধা নিয়ে নাবালিকার পরিবারকে বোঝালেন কন্যাশ্রী প্রকল্পের অফিসার প্রণব মুখার্জি। স্থানীয় লোকজন চারিদিক থেকে সবাই ছুটে আসে এবং এরকম ঘটনা দেখে সকলেই হতবাক।

পুলিশ প্রশাসনকে দেখে তাঁদের সামনেই প্যান্ডেল খুলে ফেললেন নাবালিকার পরিবারের লোকজন এবং পুনরায় ওই নাবালিকাকে স্কুলে পড়াশোনা করার জন্য রাজি হয়ে জ অ্যায় পরিবার। এই বিষয় নিয়ে হাসনাবাদ বিডিও সাহেব বলেন, প্রথম দেখেই আমি একটু অবাক হয়ে গেছি, কারণ নাবালিকা নিজেই বলছেন আমি বিয়ে করব। ফলে আমরা সবাই একত্রিত হয়ে নাবালিকাকে বোঝাবার পর তাঁর বাবা মায়ের সামনে তাঁর অবস্থার পরিবর্তন হয় এবং স্কুলে যেতে রাজি হয়। হাসনাবাদ ব্লক প্রশাসনের তরফ থকে জানা গিয়েছে যে, উত্তর ২৪ পরগণায় সবথেকে বেশি বাল্যবিবাহ আটকানো গেছে। কিন্তু প্রশ্ন এত বাল্যবিবাহ কেন? তবে কি প্রচারের অভাবে? নাকি সচেতনতার অভাব? মেয়ের মা জিন্না বিবি, আমরা বাল্যবিবাহ সম্পর্কে কিছু জানি না। প্রশাসনের কর্তারাও স্বীকার করেছে যে, সব থেকে বেশি বাল্যবিবাহ হচ্ছে এই সুন্দরবন এলাকায়। তবে তাঁরা স্কুলে স্কুলে গিয়ে যেসব নাবালিকা ও নাবালকদের মধ‍্যে বিবাহ প্রবণতা রয়েছে, তাঁদের বোঝানো হবে এবং সচেতনতা শিবির করা হবে।

(Visited 8 times, 1 visits today)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here