দার্জিলিংকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের বিরোধিতায় আমরা বাঙালি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক | August 10, 2019 | 9:12 pm
                           আমরা বাঙালির কেন্দ্রীয় সাধারণ সচিব বকুল চন্দ্র রায়
রক্তিম দাশ, কলকাতা: দার্জিলিংকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের বিরোধিতায় নামল আমরা বাঙালি। শনিবার আমরা বাঙালির কেন্দ্রীয় সাধারণ সচিব বকুল চন্দ্র রায় বলেন, “জম্মু-কাশ্মীরকে বিভক্ত করে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বাতিল হয়েছে ৩৭০ ধারা, তাই এবার ফের দার্জিলিং নিয়ে আন্দোলন নেমে পড়েছে পাহাড়ের দলগুলি। বিজেপি সাংসদ রাজু সিং বিস্ত সংসদে দাবি করেছে, দার্জিলিংকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করতে হবে। তার এই দাবির পরেই পাহাড়ের গোর্খাল্যান্ডের দাবিদার জনমুক্তি মোর্চার বিমল গুরুং রা যেমন দাবি করেছেন, ঠিক তেমনি তৃণমূল প্রভাবিত জনমুক্তি মোর্চার অপর গোষ্ঠীও। এই দাবিকে সমর্থন জানিয়েছে জেএনএলএফ। এমত অবস্থায় ফের পশ্চিমবঙ্গকে ভাগ করে গোর্খাল্যান্ড করার চক্রান্ত শুরু হয়েছে। আমরা এর তীব্র বিরোধিতা করি।”
বকুলবাবু আরও বলেন, “দার্জিলিং ভাগ করা শুধু নয়, আগামী ৩১ আগস্ট এনআরসি চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হবে। আমরা আশঙ্কা করছি, এই তালিকায় অসমে কয়েক লক্ষ বাঙালির নাম বাদ যাবে। বাঙালিকে ভারতে বিদেশী বলে আখ্যা দেওয়ার এই চক্রান্তের বিরুদ্ধে আমরা ওই দিন রাস্তায় নামব। রাজ্যের সমস্ত বাঙালিকে আমরা আহবান করছি, আসুন আমরা এর প্রতিবাদ করি।”
ভারতের সাংবিধানিক কাঠামোর মধ্যে বাঙালিকে বাঁচানোর জন্য বাঙালিস্থান তৈরি করার দাবি করেন বকুল বাবু। তিনি বলেন, “বাঙালিকে যেভাবে বিদেশী বলে চিহ্নিত করা হচ্ছে, তার বিরুদ্ধে একটাই উপায় আছে। পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, আন্দামান এবং উত্তর পূর্বে বাঙালি অধ্যুষিত এলাকাগুলোকে নিয়ে একটি আলাদা রাজ্য বাঙালিস্থান তৈরি করলেই বাঙালি জাতিকে রক্ষা করা সম্ভব। যা নিয়ে আমরা দীর্ঘদিন ধরে লড়াই করছি। বাঙালিস্থান হলেই ভারতবর্ষের সাংবিধানিক কাঠামোর মধ্যে বাঙালি জাতিকে রক্ষা করা সম্ভব।”

ক্লিক করুন এখানে, আর চটপট দেখে নিন ৪ মিনিটে ২৪টি টাটকা খবরের আপডেট